আপডেট :»Tuesday - 19 September 6361.-
  বাংলা-
পুরানো সংখ্যা খোঁজ করুন »

বকশীগঞ্জ থানার বিভিন্ন ইউনিয়নে লুকোচুরি করে বসছে জুয়ার আসর।

নাজমুল হক বাংলার র্বাতা জামালপুর প্রতনিধিঃি বকশীগঞ্জ বাজারের আশে-পাশে এবং বিভিন্ন ইউনিয়নের র্নিজন এলাকায় দিনের বেলাতেই বসছে জুয়ার র্বোড। জানাগেছে বকশীগঞ্জ সীমান্তর্বতী উপজেলা হওয়ায় প্রতিবেশি আরও দুটি উপজেলা জুরে রয়েছে প্রায় ৭০ কি.মি পাহাড়ি অঞ্চল।এই নির্জন পাহাড়ি অঞ্চলে আইনের চোখঁ ফাঁকি দিয়ে বসছে জমজমাট জুয়ার আসর।জানা গেছে, লাউচাপড়া বাজারের পাহাড়ি টিলায়,রাজা পাহাড়ের আশে পাশের বিভিন্ন জায়গায়,বাট্রাজোরের চন্দ্রবাজ,জিন্নাহ বাজার,সারমারা বাজারের আশে পাশের নির্জন এলাকা এইসব পেশাদার জুয়ারীদের নিরাপদ আস্তানা। সারমারা বাজারের এক জুয়ারী বলেন, স্থানীয় প্রভাবশালীদের হস্তক্ষেপে নিয়মিত বসছে এইসব জুযার আসর। তিনি আরও বলেন বকশীগঞ্জ সদর,দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার কাঠারবিল,তাড়াটিয়া,ঝালরচড় ও পুল্লাকান্দি থেকে আসেন এসব জুয়ারীরা।প্রধান রাস্তার মোড়ে মোড়ে,বাজারের দোকান গুলোতে থাকে তাদের ভারাটে ইনফরমার যারা পুলিশের উপস্থিতি পেলেই মোবাইল ফোনে  সর্তক করে দেয় জুয়ারীদের। আর এভাবেই তাড়া নাগালের বাইরে থেকে চালিয়ে যাচ্ছে তাদের অপরাধ র্কমকান্ড।

বকশীগঞ্জ বাজারের র্স্পশকাতর জায়গায় গতিরোধক না থাকায় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে হাজারও মানুষ ও শত শত যানবাহন।

নাজমুল হক বাংলার র্বাতা জামালপুর প্রতনিধিঃি বকশীগঞ্জ বাজারের র্স্পশকাতর জায়গায় গতিরোধক না থাকায় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে হাজারও মানুষ ও শত শত যানবাহন। মানুষের জীবন যাএার প্রয়োজনেই বকশীগঞ্জ হয়ে উঠেছে অন্যতম ব্যাস্ত শহর।স্রাম্পতিক সময়ে বকশীগঞ্জ বাজার র্পাশ্বর্বতী কুরিগ্রাম জেলাধীন রাজিবপুর ও রৌমারী ,দেওয়ানগঞ্জ থানার তাড়াটিয়া ও সানন্দবাড়ীর বিভিন্ন র্কমজীবি মানুষের পদচাড়নায় ব্যাস্ত।প্রতিদিন অসংখ্য  ছাএ ছাএী,ব্যবসায়ী,চাকুরিজীবি ও ঢাকাগামী মানুষ বকশীগঞ্জে আসছে, এর ফলে বকশীগঞ্জ বাজার সকাল থেকে শুরু করে মধ্য রাত র্পযন্ত থাকে যানযটর্পূন।  গতিরোধক না থাকায় বেপরুয়া গাড়ি চালানোর ফলে প্রায় প্রতিদিন ঘটে চলছে সড়ক র্দূঘটনা। এমতবস্তায় সচেতন মানুষের দাবী অন্তত তিনটি জায়গায(সদর হাসপাতালের সামনে,উলফাতুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এবং উপজেলা মোড়ে) জুরুরী ভিত্তিতে গতিরোধক বসানো প্রয়োজন।

ধনবাড়ীতে মাছ ও ফলে ফরমালিন ৯ ব্যবসায়ীকে ভ্রাম্যমান আদালতের জেল-জরিমানা

নাজমুল হক বাংলার র্বাতা জামালপুর প্রতনিধিঃি টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে বাজারের বিভিন্ন ধরনের মাছ ও ফলে ফরমালিন ব্যবহারের দায়ে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ৯ জন ব্যবসায়ীকে জেল জরিমানা করেছে। গতকাল ২৯ জুলাই রোববার ধনবাড়ী বাজারের ফল ও মাছ বাজারে ভ্রাম্যমান আদালাত অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন ধরনের মাছ ও ফল পরীক্ষা করে ফরমালিনের অস্তিত্ব নিশ্চিত হয়ে ৭ জন ফল ব্যবসায়ী ও ২ জন মাছ ব্যবসায়ী কে ৭ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। ধনবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাইদুল ইসলামের নেতৃত্বে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা বদরুল আলম শাহীন ও এএসআই আলমগীরের সমন্বয়ে পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালত ফরমালিন মিশ্রিত ফল ও মাছ বিক্রির অপরাধে এ জেল জরিমানা করেন এবং ফরমালিন মিশ্রিত সকল মাছ ও ফল ধ্বংশ করে মাটিতে পুঁতেফেলা হয়।

ধনবাড়ীতে মাছ ও ফলে ফরমালিন ৯ ব্যবসায়ীকে ভ্রাম্যমান আদালতের জেল-জরিমানা

নাজমুল হক বাংলার র্বাতা জামালপুর প্রতনিধিঃি টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে বাজারের বিভিন্ন ধরনের মাছ ও ফলে ফরমালিন ব্যবহারের দায়ে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ৯ জন ব্যবসায়ীকে জেল জরিমানা করেছে। গতকাল ২৯ জুলাই রোববার ধনবাড়ী বাজারের ফল ও মাছ বাজারে ভ্রাম্যমান আদালাত অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন ধরনের মাছ ও ফল পরীক্ষা করে ফরমালিনের অস্তিত্ব নিশ্চিত হয়ে ৭ জন ফল ব্যবসায়ী ও ২ জন মাছ ব্যবসায়ী কে ৭ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। ধনবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাইদুল ইসলামের নেতৃত্বে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা বদরুল আলম শাহীন ও এএসআই আলমগীরের সমন্বয়ে পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালত ফরমালিন মিশ্রিত ফল ও মাছ বিক্রির অপরাধে এ জেল জরিমানা করেন এবং ফরমালিন মিশ্রিত সকল মাছ ও ফল ধ্বংশ করে মাটিতে পুঁতেফেলা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*

>