Home / দেশ / সারাদেশ / ব্রাহ্মণবাড়িয়া / কসবায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে সকালে সূর্য ও সিডিসি’র স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত
কসবায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে সকালে সূর্য ও সিডিসি’র স্মরণ সভা

কসবায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে সকালে সূর্য ও সিডিসি’র স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত

কসবায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে সকালে সূর্য ও সিডিসি’র স্মরণ সভা
কসবায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে সকালে সূর্য ও সিডিসি’র স্মরণ সভা
মো. অলিউল্লাহ সরকার অতুল; কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহামনের শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে পাক্ষিক সকালের সূর্য ও সিডিসি স্কুলের যৌথ আয়োজনে স্মরণ সভা সোমবার (৩১ আগস্ট) কসবার সিডিসি স্কুলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্মরণসভায় বঙ্গবন্ধুর স্মরণে আলোচনা, কবিতা আবৃত্তি ও সংগীতানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠনে সিডিসির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক এবং সকালের সূর্য পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক মো. সোলেমান খানের সভাপতিত্বে আলোচনা করেন, সিডিসি স্কুলের প্রধান সমন্বয়কারী তাছলিমা আক্তার কাকলী, সহকারী প্রধান শিক্ষক সন্ধ্যা রানী সাহা, শিক্ষক নাছির উদ্দিন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সাংবাদিক মো. অলিউল্লাহ সরকার অতুল। অনুষ্ঠানে সংগীত শিল্পী মো. আবদুর রৌফ এর সঞ্চালনায় আলোচনার ফাঁকে ফাঁকে কবিতা আবৃত্তি ও সংগীত পরিবেশন করেন শিক্ষক তামান্না আক্তার, শিক্ষার্থী ফারিহা ইসলাম সাওদা, সাবিকুন নাহার হিয়া। অনুষ্ঠানে সাংবাদিক মো. রুবেল আহমেদ, ভজন শংকর আচার্য্য, আনোয়ার হোসেন উজ্জলসহ শিক্ষক, সাংবাদিক ও অভিভাবক উপস্থিত ছিলেন।

About banglarbarta.com

আরও পড়ুন...

কুয়েতে তরুন সফল উদ্যোক্তা

কুয়েতে সাধারণ এক গাড়িচালক হিসেবে প্রবাস জীবন শুরু। সেই থেকে কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে ধীরে ধীরে সফল ব্যবসায়ীতে পরিণত হয়েছেন । বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশ থেকে নিত্যব্যবহার্য পণ্য আমদানি করে এরই মধ্যে দেশটিতে বিশাল বাজার তৈরি করে ফেলেছেন তরুণ এই প্রবাসী।শরীফ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।।  মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম (৩৮)। বন্ধুরা তাঁকে সম্মান করে মুফতি নামে ডাকেন। গ্রামের বাড়ি পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার বেকুটিয়া গ্রামে। শহিদুল ইসলামের বাবা মুহাম্মদ সুলতান আলী পেশায় একজন কৃষক। বাংলাদেশে থাকার সময় শহিদুল ইসলাম রাজধানীর মিরপুরের মাদ্রাসা দারুল উলুম থেকে দাওরায়ে হাদিস বিষয়ে পড়াশোনা করেন এবং সর্বোচ্চ ডিগ্রি মুফতি উপাধি অর্জন করেন। এরপর কিছুদিন দেশে একটি মাদ্রাসায় শিক্ষকতাও করেন তিনি। শহিদুল ইসলাম জানান, ২০০৫ সালে কুয়েতে এসে কুয়েতি  নাগরিকের ওখানে গাড়িচালক হিসেবে তিনি দুই বছর কাজ করেন। সে কাজের সূত্রে কুয়েতের বিভিন্ন স্থান ও বাজার সম্পর্কে পরিচিত হন তিনি। পরে গাড়ি চালানো বাদ দিয়ে তিনি কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে বিক্রয়কর্মীর চাকরি  করেন।  পাশাপাশি ছোট খাট …

error: Content is protected !!