Home / বিশ্ব / কুয়েতে বাংলাদেশি মা-মেয়ের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার

কুয়েতে বাংলাদেশি মা-মেয়ের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার

কুয়েতের রাজধানী কুয়েত সিটির জালিব আল সুযুখ এলাকার একটি বাড়ি থেকে বাংলাদেশি মা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, শুক্রবার (২৮ আগস্ট) বাড়িটির নিচতলার একটি কক্ষ থেকে প্রবাসী ওই দুই বাংলাদেশির রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর ধারণা, তাদেরকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে। এ ঘটনায় কারা জড়িত তা জানা যায়নি।

কুয়েতি কর্তৃপক্ষ থেকে নিহত মা-মেয়ের পরিচয় প্রকাশ করেনি। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। কারা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা জানতে তদন্ত করছে পুলিশ।

কুয়েতে খুন হওয়া প্রবাসী বাংলাদেশি মা ও মেয়ের  পরিচয় পাওয়া গেছে। নিহত ওই নারীর নাম মমতা (৫৬) এবং মেয়ের নাম স্বর্ণলতা ৩১। দেশের বাড়ি মানিকগঞ্জ জেলার ধামরাইয়ে।
দেশটির  জিলিব আল সুয়েখ এলাকার একটি ঘর থেকে তাদের মৃতদেহ রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করে স্থানীয় প্রশাসন ।
শুক্রবার সকালের দিকে যখন নিহতদের ঘরের পাশ দিয়ে লোকজন  যাতায়াত করছিলেন, তখন ওই তালাবন্ধ ঘর থেকে দুর্গন্ধ আসছিল। ফলে তাৎক্ষণিকভাবে এবিষয়টি স্থানীয় পুলিশকে জানানো হয়।
পরে পুলিশ এসে ঘরের দরজা খুলে মা-মেয়ের মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।
বাংলাদেশে থাকা অবস্থায় মমতার স্বামী মারা যান। পরে মা মমতা তার মেয়ে স্বর্ণলতাকে নিয়ে আসেন কুয়েতে।
দুজনই কুয়েতে কর্মরত ছিলেন। মা মকমতা কাজ করতেন স্থানীয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিভাগে এবং মেয়ে কাজ করতেন সুলতান সেন্টার নামক একটি প্রতিষ্ঠানে। জানা গেছে
স্বর্ণলতা গেলো মঙ্গলবার কর্মস্থলে শেষ যোগদান করেছিলেন ।
 IMG-20200828-WA0266IMG-20200829-WA0093

About admin

আরও পড়ুন...

যাঁরা ভ্যাকসিন গ্রহণ করেননি তাঁরা কুয়েতে প্রবেশ করতে পারবেন না

করোনা মহামারীর প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে কুয়েত সরকার । দেশটিতে অবস্থানরত সকল জনগণের সুরক্ষায় যুগোপযোগী …

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ