Home / শীর্ষ সংবাদ / কুয়েত প্রবাসীদের হৃদয়ের একটি ইতিহাস স্বর্নাক্ষরে লেখা থাকবে যার নাম

কুয়েত প্রবাসীদের হৃদয়ের একটি ইতিহাস স্বর্নাক্ষরে লেখা থাকবে যার নাম

মঈন উদ্দিন সরকার সুমন, কুয়েত সিটিঃ ইচ্ছা থাকলে উপায় হয়, সেই কথাটির বাস্তব প্রমান করলেন কুয়েত-এ নিযুক্ত বর্তমান বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আস্হাব উদ্দীন, এনডিসি, পিএসসি (অব:)। কি না করছেন কুয়েত প্রবাসীদের জন্য। দীর্ঘ কয়েক বছর বাংলাদেশীদের জন্য কুয়েত শ্রম বাজার সার্বিক ভাবে বন্ধ ছিলো সেই বন্ধ দরজাটি খুলে দিলেন। এরই মধ্যে বেশ কয়েক হাজার নতুন শ্রমিক কুয়েতে প্রবেশ করেছেন বিভিন্ন কাজে। অপরাধ লিস্ট এর প্রথম সারি থেকে বর্তমানে সুনাম এর লিস্টে বাংলাদেশ,

এই অপরাধ প্রবনতা থেকে সাধারন প্রবাসীদের ফিরিয়ে আনতে নানান সাংস্কৃতি অনুষ্ঠানের আয়োজন করছেন এক এর পর এক। এরই সাথে আয়োজন করেছেন  হাডুডু, ক্রিকেট, ফুটবল এর অসংখ্য প্রতিযোগিতা। যেখানে সংগঠন , এলাকা থেকে শুরু করে বিভাগীয় দলে অনেক খেলার প্রতিযোগিতার আয়োজন করেন। আরো আয়োজন করেছেন পিঠা উৎসব, বৈশাখী মেলার। সে সকল কার্যক্রমের মাধ্যমে কুয়েত প্রবাসী বাংলাদেশী সকলকে ঐক্য করতে দায়িত্ব দিয়েছেন কমিউনিটির নেতৃবৃন্দকে।

তিনি আরো কিছু কাজ করেছেন যা কিনা কুয়েত প্রবাসীদের সর্বকালে কুয়েতে চলার পথে অগ্রনী ভূমিকা পালন করবে। এর মধ্যে কুয়েত রেডিওতে বাংলা সার্ভিস যা বর্তমানে শুক্র, সোম ও বুধবার সাপ্তাহে তিনদিন বিকাল ৬:০০ টা থেকে ৭:০০টা পর্যন্ত সম্পূর্ন বাংলাদেশীদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। আগামীতে প্রতিদিন করার চেষ্টা চলছে। এছাড়া ২০১৫ সালে ৫ জানুয়ারি সোমবার থেকে কুয়েত সরকারি টিভি চ্যানেল কঞঠ২ তে ওহ ঞড়ঁপয ইধহমষধ “বিশ্বায়নে

বাংলা” নামে একটি সাপ্তাহিক অনুষ্ঠান প্রচার এর ব্যবস্থা করেন। এই প্রথম বাংলাদেশের বাহিরে কোন রাজতন্ত্র দেশের রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত টেলিভিশনে  বাংলাদেশীদের পরিকল্পনায় কোন অনুষ্ঠান। সম্প্রতি কুয়েত-এ নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আস্হাব উদ্দীন, এনডিসি, পিএসসি (অব:) শুভ উদ্বোধন করলেন কুয়েতে বসবাসরত বাংলদেশী প্রবাসীদের দীর্ঘ দিনের আকাঙ্খা এবং দীর্ঘ প্রতিক্ষার  স্কুলটি। যার নাম দেন “মর্নিং গ্লোরি বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল”।

কুয়েতে বসবাসরত বাংলদেশী প্রবাসীদের দীর্ঘ দিনের আকাঙ্খা কুয়েতে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে গত ১০ জানুয়ারি ২০১৫ তারিখ সন্ধ্যা ০৭:৩০ ঘটিকায় মান্যবর রাষ্ট্রদূত মহোদয়ের সরকারি বাসভবনে কুয়েতের কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ এবং প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ীদের সাথে একটি সভা ও সান্ধ্য ভোজের আয়োজন করা হয়। উক্ত সভার প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসাবে মান্যবর রাষ্টদূত মহোদয় ১০ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করেন;

যেখানে স্কুল প্রতিষ্ঠার এই উদ্যেগকে সফল করার লক্ষ্যে একজন চেয়ারম্যান ও তিনজন কো-চেয়ারমান নিযুক্ত করেন।   মান্যবর রাষ্টদূত মহোদয়ের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা ও উদ্দেশ্য বাস্তবে পরিনত করার লক্ষ্যে কমিউনিটির কয়েকজন তৎপর দেশপ্রেমিক ব্যবসায়ীদের নেতৃত্বে পারস্পারিক সহযোগিতার মাধ্যমে প্রবাসীদের ঐতিহাসিক স্বপ্ন পূরন হয় প্রায় ৬০০-৭০০ প্রবাসী বাংলাদেশী বিশেষ করে কমলমতি ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকদের

উপস্থিততে গত ২২ মে ২০১৫ তারিখ রোজ শুক্রবার কুয়েতস্থ বাংলাদেশের মান্যবর রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আস্হাব উদ্দীন, এনডিসি, পিএসসি(অব:) মর্নিং গ্লোরি বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল-এর শুভ উদ্বোধন ঘোষনার মাধ্যমে। মান্যবর রাষ্ট্রদূত মহোদয় দৃঢ় আশাবাদ এবং প্রত্যাশা করেন যে ’মর্নিং গ্লোরি’ স্কুল ২০১৫ সালের মধ্যে প্রি-স্কুল, ২০১৬ সালের মধ্যে প্রাথমিক স্কুল সম্পন্নকরন,

২০১৮ সাল থেকে ষষ্ঠ শ্রেনী এবং তদুর্ব্ধ উন্নীতকরন এবং ২০২১ সালের মধ্যে মাধ্যমিক স্কুলে রূপাšতর করা হবে। পরিশেষে মান্যবর রাষ্ট্রদূত বহুল প্রতিক্ষিত স্কুল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগাদান করার ক্ষেত্রে এবং সার্বিক উন্নতির লক্ষ্যে উপস্থিত সকল প্রবাসী, অভিভাবকবৃন্দ, স্কুল পরিচলনা কমিটি এবং বিশেষ করে স্কুল প্রতিষ্ঠাকারী দাতা ব্যক্তিবর্গকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। কুয়েতে প্রবাসী বাংলাদেশীদের  দীর্ঘ দিনের লালিত স¦প্নকে বা¯তবে রূপ দেয়ার জন্য সকল প্রবাসী,

বিশেষ করে  অভিভাবকবৃন্দ  মাননীয়  রাষ্ট্রদূত  জেনারেল আস্হাবকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। দেশ প্রেম এবং দেশের মানুষকে কি ভাবে ভালবাসতে হয় এবং সঠিক নেতৃত্ব কিভাবে দেয় এছাড়াও জীবনে চলার পথে অনেক কিছু শেখার আছে বলে মনে করেন কুয়েত প্রবাসীরা। ওনার সকল কার্যক্রম কুয়েত প্রবাসীদের মাঝে ইতিহাস হয়ে থাকবে স্বর্নাক্ষরে।  প্রতিবেদকঃ লেখক ও সাংবাদিক মঈন উদ্দিন সরকার সুমন কুয়েত থেকে।

About

আরও পড়ুন...

শুভ জন্মদিন শিরীন বকুল

অনায়াসেই শিরীন বকুল জীবন বা জীবিকার সহজ কোনো উপায় বেছে নিতে পারত, অথবা বেছে নিতে …

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ