Home / দেশ / ক্ষীণ স্বাস্থ্যের মডেল বিজ্ঞাপনে নিষিদ্ধ

ক্ষীণ স্বাস্থ্যের মডেল বিজ্ঞাপনে নিষিদ্ধ

মেয়েদের বিশেষ করে মডেল কন্যাদের ক্ষীণস্বাস্থ্যের অধিকারী হওয়াটা আজকাল ফ্যাশন হয়ে গেছে। তবে বাড়াবাড়ি রকমের স্বাস্থ্যহীনতা যে দৃষ্টিকটু তা বলাই বাহুল্য। আর এ ধরনের স্বাস্থ্যহীনতা সাধারণত আহারে অনীহার কারণেই হয়ে থাকে। এ কারণেই বিজ্ঞাপন ও ক্যাটওয়াকে আন্ডারওয়েট বা স্বাভাবিকের চেয়ে কম ওজনের মডেলদের নিষিদ্ধ করেছে ইসরায়েল। ইসরায়েলি সরকার এ ব্যাপারে রীতিমত আইন পাস করেছে। এই নতুন আইন মোতাবেক এখন থেকে কোনো মডেলকে চিকিৎসকের কাছ থেকে তার ওজনের সনদপত্র দেখাতে হবে। এই আইনের সমর্থকরা মনে করেন, অতি মাত্রায় হালকা-পাতলা গড়ন আসলে কম বয়সী মেয়েদের আহারে অনীহার কারণেই হয়ে থাকে। তবে সমালোচকরা বলছেন, সরকারের উচিত এই আইনের আওতায় শুধু স্বাস্থ্যগত দিকটাই দেখা, ওজন নয়। কারণ অনেক মডেল আছে হালকা-পাতলা গড়নই যাদের স্বাভাবিক স্বাস্থ্য। তবে আইন যেহেতু পাস হয়েই গেছে সুতরাং এখন থেকে ইসরায়েলি মডেলদের বডি ম্যাস ইনডেক্স বা বিএমআই মেনে চলতে হবে। বিএমআই হিসেব মোতাবেক মানুষের উচ্চতা ও ওজনের অনুপাত ১৮ দশমিক ৫ এর কম হবে না। শুধু তাই নয়, মডেলিং পেশায় থাকতে হলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে নিয়মিত হালনাগাদ ডাক্তারি সনদ দেখাতে হবে। প্রসঙ্গত, ইসরায়েলের ১৪ থেকে ১৮ বছর বয়সী মেয়েদের মধ্যে ২ শতাংশের আহারে চরম অনীহা আছে। অন্য উন্নত দেশেও এই সমস্যা একই হারে রয়েছে বলে নানা জরিপে জানা যায়। সুতরাং এই নতুন আইনের কারণে ইসরায়েলের অনেক মডেল চাকরি হারাবে তাতে সন্দেহ নেই।

About

আরও পড়ুন...

ভ্যাকসিন প্রাপ্তির তালিকায় বিদেশগামী কর্মীরা

কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন প্রাপ্তির তালিকায় অগ্রাধিকার প্রাপ্ত বিদেশগামী কর্মীদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। iপ্রবাসী কল্যাণ ও …

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ