Home / দেশ / ঘরের বাইরে মাস্ক পরি, বিপদমুক্ত ও নিরাপদ থাকি” নিশ্চিতে সামাজিক আন্দোলনের আহবান

ঘরের বাইরে মাস্ক পরি, বিপদমুক্ত ও নিরাপদ থাকি” নিশ্চিতে সামাজিক আন্দোলনের আহবান

CABনিজে ভাল থাকি, সবাইকে ভালো রাখি” শ্লোগানে “ঘরের বাইরে মাস্ক পরি, বিপদমুক্ত ও নিরাপদ থাকি” দাবিতে মানববন্ধনের আয়োজন করেন দেশের ক্রেতা-ভোক্তাদের স্বার্থ সংরক্ষনকারী জাতীয় প্রতিষ্ঠান কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) চট্টগ্রাম। ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ইং নগরীর ঢাকা চট্টগ্রাম প্রবেশমূখ এ কে খান মোরে আয়োজিত মানববন্ধন ও গণজমায়েতে বিভিন্ন বক্তাগন বলেন করোনা মহামারীতে অনেকে অতি আপনজন হারিয়েছেন। অনেকে পরিবারের উপার্জনক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়েছে। করোনার কারনে অনেকে চাকুরী হারিয়েছে। চিকিৎসা ব্যবস্থা, শিক্ষা ও অর্থনীতি পুরোটাই ভেঙ্গে পড়েছে। কিন্তু ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরলে এ সংক্রমন ব্যাধি থেকে নিজেকে বাঁচাতে পারে ও পরিবারের আপনজনকে সুরক্ষা দিতে পারেন। মাস্ক ব্যবহারে সাধারন মানুষের অসচেতনতার কারনে পুরো দেশ করোনার হুমকিতে আছে। সরকার মাস্ক বাধ্যতামুলক করে আইন ও নির্দেশনা দিলেও জনগনের মাঝে এ বিষয়ে কোন তৎপরতা নাই। তাই গণপরিবহনে মাস্ক ছাড়া যাত্রী না তোলা ও হাট, বাজার ও দোকানে মাস্ক ছাড়া বিক্রি নাই” বিষয়টি কঠোরভাবে মেনে চলার জন্য স্থানীয় প্রশাসন, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও সংস্লিষ্ঠ সকলের প্রতি আহবান জানানো হয়।

ক্যাব আকবরশাহ থানার সভাপতি ও লিও ক্লাব সভাপতি ডাঃ মাসবাহ উদ্দীন তুহিনের সভাপতিত্বে ও ক্যাব ডিপিও জহুরুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, পাহাড়তলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মঈনুর রহমান, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সদ্য বিদায়ী কাউন্সিলর আবিদা আজাদ, পাহাড়তলী থানার সাব ইনসপেক্টর মনির হোসেন, ক্যাব মহানগরের যুগ্ন সম্পাদক মোহাম্মদ জানে আলম, ক্যাব সদরঘাট থানার সভাপতি শাহীন চৌধুরী, ক্যাব খুলসী থানা সভাপতি প্রকৌশলী লায়ন হাফিজুর রহমান, ক্যাব আকবর শাহ থানার সাধারন সম্পাদক দিদার প্রধান, ক্যাব পশ্চিম ষোলশহর ওয়ার্ড সভাপতি অধ্যাপক হুমায়ুন কবির, সাধারণ সম্পাতদক আখতার হোসেন, লায়ন ইয়ুথ এক্সচেঞ্জ চেয়ারম্যান লায়ন নবীউল হক সুমন, লিও জেলা সভাপতি এইচ এম হাকিম, ক্যাব পাঁচলাইশের আবদুল মাজেদ ভাষানী, ক্যাব পাহাড়তলীর হারুন গফুর ভুইয়া, ক্যাব আকবর শাহ থানার ডাঃ কিশোর কুমার আচায্য, নারী নেত্রী ইয়াছমিন প্রমুখ।

humanchain on mask nazerবক্তারা বলেন মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর নেতৃত্বে সরকার করোনা মহামারী থেকে জনগনকে সুরক্ষা দেবার জন্য নানাবিধ উদ্যোগ গ্রহন করেছেন। কিন্তু করোনা রোধে স্বাস্থ্যবিধি ও মাস্ক পরা বাধ্যতামুলক আইনের প্রয়োগে শিথিলতার কারনে দেশ পুনরায় করোনার ঝুঁকিতে পড়তে যাচ্ছে। ঘরের বাইরে মাস্ক পরা ও গণপরিবহন ও হাট বাজারে স্বাস্থ্যবিধি মানতে শিতিলতার কারনে আবারও লকডডাউনসহ নানা জঠিলতায় পুরো দেশেকে অর্থনীতিসহ সব বিষয়ে পঙ্গুত্ব বরণে বাধ্য হতে হবে। তাই এখনই সময় করোনা সংক্রান্ত স্বাস্থ্যবিধি কঠোর ভাবে মেনে চলতে জনগনকে বাধ্য করার জন্য স্থানীয় প্রশাসন, আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলির যথাযথ উদ্যোগ নেবার আহবান জানানো হয়।

করোনা প্রতিরোধে “ঘরের বাইরে মাস্ক পরি, বিপদমুক্ত ও নিরাপদ থাকি” প্রচারণা কর্মসূচির আওতায় নগরীর গুরুত্বপুর্ন স্থান, টার্মিনাল ও বাজারগুলিতে প্রচারণা কর্মসুচির আওতায় এ ধরনের আয়োজন করা হচ্ছে। পরবর্তীতে অন্যান্য স্থানগুলিতে এ ধরনের প্রচারণা কর্মসূচির আয়োজন করা হবে।

আরও পড়ুন...

নগরীতে জেএসইউএস ও সিডিডি আয়োজিত প্রতিবন্ধিতা ও একীভূত উন্নয়ন বিষয়ক কর্মশালা

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের নিয়ে কর্মরত জাতীয় সংগঠন সেন্টার ফর ডিজএ্যাবিলিটি ইন ডেভেলপমেন্ট (সিডিডি) ও সিবিএম এর সহযোগিতায় বেসরকারী মানব উন্নয়ন মূলক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন যুগান্তর সমাজ উন্নয়ন সংস্থা (জেএসইউএস)’র অংশগ্রহণে “প্রতিবন্ধিতা ও একীভূত উন্নয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ”গত ১৯ নভেম্বর ২০২০ ইংরেজী নগরীর দেওয়ানবাজারস্থ সংস্থার প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে জেএসইউএস নির্বাহী পর্ষদের সদস্য ও সংস্থার উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণে আয়োজিত কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন সংস্থার সহ-সভাপতি ফারজানা রহমান শিমু, সাধারণ সম্পাদক ও নির্বাহী পরিচালক ইয়াসমীন পারভীন, ব্যবস্থাপনা উপদেষ্টা ও পরিচালক কবি প্রাবন্ধিক সাঈদুল আরেফীন, সহ-সাধারণ সম্পাদক আলহাজ ছাবের আহমেদ, নির্বাহী সদস্য শাহানাজ বেগম, সিনিয়র এসিসটেন্ট ডিরেক্টর এম এ আসাদ, এসিসটেন্ট ডিরেক্টর শহীদুল ইসলাম, সংস্থার শাখা ব্যবস্থাপকসহ অপরাপর কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও সিডিডি-এর পক্ষ থেকে থিমেটিক এক্সপার্ট মো: জাহাঙ্গীর আলম, সিডিডি’র কোঅর্ডিনেটর ও প্রজেক্ট ম্যানেজার তানবিন আহমেদ, শাহ জালাল, জুনায়েদ রহমান, হীরা বণিক উপস্থিত ছিলেন। কর্মশালায় প্রতিবন্ধিতা বিষয়ক ধারণা, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অন্তর্ভূক্তি, সংস্থায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অন্তর্ভূক্তি বিষয়ে ধারণা ও সকল কর্মকাণ্ডে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিকে সম্পৃক্তকরণের পাশাপাশি এ সংক্রান্ত কর্মপদ্ধতি নির্ধারণসহ নানা বিষয়ে আলোচনা করা হয়। কর্মশালাটি পরিচালনা করেন মো: জাহাঙ্গীর আলম। কর্মশালা পরিচালনায় মো: জাহাঙ্গীর আলম বলেন, “বর্তমান সরকারের আন্তরিকতা ও নানা উদ্যোগ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। সরকারের এ সংক্রান্ত অনেক আইন ও নীতিমালা রয়েছে। কিন্তু  সে অনুযায়ি সচেতনতা না থাকায় এর সুফল প্রতিবন্ধী ব্যক্তিবর্গ পাচ্ছেন না। আমাদের সকলের সম্মিলত প্রচেষ্টায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি সাধিত হতে পারে।” উদ্যোগ নিতে হবে আমাদের সকলকে বলে তিনি মন্তব্য করেন। এ প্রসঙ্গে সংস্থার পরিচালক কবি প্রাবন্ধিক সাঈদুল আরেফীন বলেন, “জেএসইউএস প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। সংস্থা অপরাপর কর্মসূচীতে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অংশগ্রহণ এবং তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সর্বোচ্চ গুরুত্বারোপ করে।” ভবিষ্যতে সকল প্রকল্প গ্রহণ এবং বাস্তবায়নে প্রতিবন্ধিতা ইস্যুটি সর্বাগ্রে বিবেচনা করা হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি বার্তা প্রেরক মো: আরিফুর রহমান প্রোগ্রাম ম্যানেজার (এসডিপি)