Home / দেশ / সারাদেশ / ব্রাহ্মণবাড়িয়া / নাসিরনগরে যাত্রীবাহী যানবাহনে গণডাকাতি

নাসিরনগরে যাত্রীবাহী যানবাহনে গণডাকাতি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : নাসিরনগর-সরাইল সড়কে ১২/১৩টি যানবাহনে দূর্ধর্ষ গণডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ডাকাতরা ৪ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে বলে যাত্রীরা দাবি করেছে। রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টা ও সোমবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে পুটিয়া-কুন্ডা মধ্যবর্তী স্থানে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ডাকাতের হামলায় ২ জন আহত হয়েছে। সন্ধ্যায় ডাকাতির শিকার বানিয়াচং উপজেলার জুয়েল চৌধুরী জানায়,শনিবার রাতে নাসিরনগর সদরের ভগ্নিপতি পলাশ দত্তের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনার সংবাদ পেয়ে বিশ্বরোড থেকে সিএনজি যোগে নাসিরনগর আসার পথে ৮/১০জনের এক দল ডাকাত রাস্তায় ব্লক দিয়ে ৮/৯ টি সিএনজি ও ১টি মাইক্রো আটকিয়ে যাত্রীদের মারধর করে তাদের কাছ থেকে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার মোবাইল ফোন সেটসহ ৩ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে যায়। সকালে ডাকাতির শিকার নাসিরনগর উপজেলার ফুলপুর গ্রামের আহত এ্যাংরাজ মিয়া জানায়, সোমবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে বিশ্বরোড থেকে কয়েকটি সিএনজি যাত্রী নিয়ে নাসিরনগর আসার পথে সরাইল এলাকার পুটিয়া-কুন্ডা মধ্যবর্তী স্থানে ৪ টি সিএনজি থামিয়ে ডাকাতরা যাত্রীদের অস্ত্রের মুখে নগদ ৮০ হাজার টাকা, মোবাইল সেটসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এসময় ডাকাতের হামলায় এ্যাংরাজ মিয়া(৪০)সহ ২জন আহত হয়। আহত এ্যাংরাজ মিয়াকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এব্যাপারে সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ উত্তম কুমার চক্রবর্তী জানান, এ সড়কে নিয়মিত পুলিশ টহল দেয়। আগের চেয়ে ডাকাতি অনেক কমে গেছে। ডাকাতি রোধে আমাদের কোন কার্পণ্যতা নেই। তবে ডাকাতি হলেও কেউ মামলা করতে আসে না। নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবদুল কাদের জানান, নাসিরনগর এলাকায় ডাকাতি হচ্ছে না। তবে ডাকাতির শিকার লোকজন নাসিরনগর এলাকার।

About

আরও পড়ুন...

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে বিজয় দিবস উদযাপিত

বিজয় দিবস উদযাপিত হয়েছে। ১৫ ডিসেম্বর রাতেই সরকারি বেসরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ভবন ও স্থাপনা সমূহে …

error: Content is protected !!