Home / দেশ / পাতাঁনো নির্বাচন জনগণ প্রতিহত করবে- ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন

পাতাঁনো নির্বাচন জনগণ প্রতিহত করবে- ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন

মোঃ হাবিবুর রহমান খান, কুমিল্লা প্রতিনিধি-‘৮৬ মার্কা পাঁতানো নির্বাচন’ অনুষ্ঠানের চেষ্টা করা হলে দেশের জনগণ তা প্রতিহত করবে বলে সরকারকে কঠোর হুঁশিয়ারী দিয়েছেন বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির অন্যতম সিনিয়র সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, জনগণের সমস্যা সমাধানে সরকারের নজর নেই। তারা গণতন্ত্রকে হত্যা করে ২০২১ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার দিবাস্বপ্ন দেখছে। দেশ ও গণতন্ত্রের স্বার্থে এই ধরনের প্রহসনের নির্বাচন না করার জন্য ড. মোশাররফ সরকারের প্রতি দাবি জানান। তিনি আজ শুক্রবার কুমিল্লার দাউদকান্দি সদরে পৌর বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক মরহুম নেয়ামূল করিম চৌধুরীর স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। ড. মোশাররফ বলেন, ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা চালু করা হয়েছিল। পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে জনগণের সেই অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা পুনরায় চালু করে ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে চলমান গণতান্ত্রিক আন্দোলনে সামিল হবার জন্য তিনি জনগণের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান। আগামী নির্বাচন নির্দলীয় সরকারের অধীনেই অনুষ্ঠিত হবে এই আশাবাদ ব্যক্ত করে ড. মোশাররফ বলেন, সরকারের দুর্নীতি আর ব্যর্থতায় দেশে চরম অরাজকতা বিরাজমান। মানুষ সীমাহীন দুর্ভোগ, নির্যাতন ও নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে। সরকারের মদতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এখন হত্যাযজ্ঞে নেমেছে। সাংবাদিক সাগর-রুনী এবং সৌদী দূতাবাসের কর্মকর্তা হত্যাকান্ডে জড়িত খুনিদের গ্রেফতার করা হচ্ছে না। স্বরাষ্ট্রামন্ত্রী বড় বড় কথা বলছেন কিন্তু কিছুই করতে পারছে না। তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রনহীন। সরকার গ্যাস, বিদ্যুৎ দিতে পারছে না। অথচ দাম বাড়াচ্ছে দফায় দফায়। এতে শিল্প কারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, নতুন শিল্প চালু করতে পারছে না। দেশে বিনিয়োগ নেই, কর্মসংস্থান নেই। নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে সীমান্তে প্রতিনিয়ত বিএসএফ বাংলাদেশীদের হত্যা করছে। সরকারের প্রতিবাদ করার সাহস নেই। বিদেশে শ্রমবাজার বন্ধ হয়ে গেছে। সৌদী আরব থেকে প্রবাসীরা খালি হাতে দেশে ফিরছে। দাউদকান্দি পৌর বিএনপি’র সভাপতি আব্দুস সাত্তারের সভাপতিত্বে সভায় বক্তৃতা করেন, কেন্দ্রীয় যুব দলের সহ-সভাপতি কেএমআই খলিল, বিএনপি নেতা শাহজাহান চৌধুরী, সাইফুল আলম ভূইয়া, একেএম শামসুল হক, আবুল হাসেম চেয়ারম্যান, ভিপি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ কামাল হোসেন, ড. খন্দকার মারুফ হোসেন, ৫নং ওয়ার্ডের পৌর বিএনপির সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ আলী শাহীন, ছাত্রনেতা ভিপি শাহাবুদ্দিন ভুঁইয়া প্রমুখ।

আরও পড়ুন...

নগরীতে জেএসইউএস ও সিডিডি আয়োজিত প্রতিবন্ধিতা ও একীভূত উন্নয়ন বিষয়ক কর্মশালা

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের নিয়ে কর্মরত জাতীয় সংগঠন সেন্টার ফর ডিজএ্যাবিলিটি ইন ডেভেলপমেন্ট (সিডিডি) ও সিবিএম এর সহযোগিতায় বেসরকারী মানব উন্নয়ন মূলক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন যুগান্তর সমাজ উন্নয়ন সংস্থা (জেএসইউএস)’র অংশগ্রহণে “প্রতিবন্ধিতা ও একীভূত উন্নয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ”গত ১৯ নভেম্বর ২০২০ ইংরেজী নগরীর দেওয়ানবাজারস্থ সংস্থার প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে জেএসইউএস নির্বাহী পর্ষদের সদস্য ও সংস্থার উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণে আয়োজিত কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন সংস্থার সহ-সভাপতি ফারজানা রহমান শিমু, সাধারণ সম্পাদক ও নির্বাহী পরিচালক ইয়াসমীন পারভীন, ব্যবস্থাপনা উপদেষ্টা ও পরিচালক কবি প্রাবন্ধিক সাঈদুল আরেফীন, সহ-সাধারণ সম্পাদক আলহাজ ছাবের আহমেদ, নির্বাহী সদস্য শাহানাজ বেগম, সিনিয়র এসিসটেন্ট ডিরেক্টর এম এ আসাদ, এসিসটেন্ট ডিরেক্টর শহীদুল ইসলাম, সংস্থার শাখা ব্যবস্থাপকসহ অপরাপর কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও সিডিডি-এর পক্ষ থেকে থিমেটিক এক্সপার্ট মো: জাহাঙ্গীর আলম, সিডিডি’র কোঅর্ডিনেটর ও প্রজেক্ট ম্যানেজার তানবিন আহমেদ, শাহ জালাল, জুনায়েদ রহমান, হীরা বণিক উপস্থিত ছিলেন। কর্মশালায় প্রতিবন্ধিতা বিষয়ক ধারণা, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অন্তর্ভূক্তি, সংস্থায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অন্তর্ভূক্তি বিষয়ে ধারণা ও সকল কর্মকাণ্ডে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিকে সম্পৃক্তকরণের পাশাপাশি এ সংক্রান্ত কর্মপদ্ধতি নির্ধারণসহ নানা বিষয়ে আলোচনা করা হয়। কর্মশালাটি পরিচালনা করেন মো: জাহাঙ্গীর আলম। কর্মশালা পরিচালনায় মো: জাহাঙ্গীর আলম বলেন, “বর্তমান সরকারের আন্তরিকতা ও নানা উদ্যোগ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। সরকারের এ সংক্রান্ত অনেক আইন ও নীতিমালা রয়েছে। কিন্তু  সে অনুযায়ি সচেতনতা না থাকায় এর সুফল প্রতিবন্ধী ব্যক্তিবর্গ পাচ্ছেন না। আমাদের সকলের সম্মিলত প্রচেষ্টায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি সাধিত হতে পারে।” উদ্যোগ নিতে হবে আমাদের সকলকে বলে তিনি মন্তব্য করেন। এ প্রসঙ্গে সংস্থার পরিচালক কবি প্রাবন্ধিক সাঈদুল আরেফীন বলেন, “জেএসইউএস প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। সংস্থা অপরাপর কর্মসূচীতে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অংশগ্রহণ এবং তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সর্বোচ্চ গুরুত্বারোপ করে।” ভবিষ্যতে সকল প্রকল্প গ্রহণ এবং বাস্তবায়নে প্রতিবন্ধিতা ইস্যুটি সর্বাগ্রে বিবেচনা করা হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি বার্তা প্রেরক মো: আরিফুর রহমান প্রোগ্রাম ম্যানেজার (এসডিপি)