Home / দেশ / বগুড়ায় বিদেশী রিভলবার ও চাপাতিসহ তিনজন গ্রেফতার

বগুড়ায় বিদেশী রিভলবার ও চাপাতিসহ তিনজন গ্রেফতার

বগুড়া জেলা প্রতিনিধি বগুড়ার শাজাহানপুরে একটি বিদেশী রিভলবার, দুটি চাপাতি উদ্ধারসহ এই অস্ত্রগুলো নিজ হেফাজতে রাখার অভিযোগে সোমবার তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, গ্রেফতারকৃতরা হলো বগুড়া শহরের চকফরিদ কলোনীর আনোয়ারুল ইসলামের ছেলে জাকির হোসেন বাবু (২১), চকফরিদ মুন্সিপাড়ার শফিকুল ইসলামের ছেলে ফজলে রাব্বি (২১) ও শহরতলীর বেতগাড়ী বটতলা এলাকার মহসীন আলীর ছেলে শরিফুল ইসলাম (২৪)। বগুড়ার পুলিশ সুপার মোজাম্মেল হক পিপিএম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তার সার্বিক দিক নিদের্শনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সৈয়দ আবু সায়েম এর তত্বাবধানে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল-এ) মোকবুল হোসেন, শাজাহানপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ, এসআই আমিরুল ইসলামসহ পুলিশের একটি বিশেষ টিম অভিযান চালিয়ে গতকাল সোমবার বিকেল আনুমানিক সোয়া ৬ টায় শাজাহানপুর উপজেলার সাজাপুর উত্তরপাড়া এলাকায় মোহিনী জুট মিলের কাছ থেকে ওই তিনজনকে গ্রেফতার করে। তিনি জানান, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে জাকির হোসেন বাবুর কোমড় থেকে একটি বিদেশী পিস্তল এবং রাব্বি ও শরিফুলের হেফাজত থেকে ২ টি ধারালো চাপাতি উদ্ধার করা হয়। ধৃত আসামী ছাড়াও পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আরো ৮/৯ জন ৪ টি মোটরসাইকেল ফেলে পালিয়ে যায়। নম্বর বিহীন ওই ৪ টি মোটরসাইকেল আটক করা হয়েছে। তিনি জানান, ওই এলাকায় একটি জমি অবৈধ ভাবে দখল করতে যাচ্ছিল বলে জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেছে।

বগুড়ায় হত্যা মামলায় স্বামী-স্ত্রী গ্রেফতার
বগুড়া সোনাতলার নামাজখালী গ্রামে মুন্টু (৪৫) হত্যা মামলার আসামী ছোট ভাই আব্দুল লতিফ (৩৮) ও তার স্ত্রী দেলেরা বেগম (৩৫) কে  পুলিশ গ্রেফতার করেছে। থানা সুত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সুপার বগুড়া’র মোজাম্মেল হক পিপিএম এর সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে, সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার মোকবুল হোসেন ও থানা অফিসার ইনচার্জ এ কে এম খালেকুজ্জামন পিপিএম-এর নির্দেশনায়, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোজাফফর হোসেনের নেতৃত্বে মামলার তদন্তকারি অফিসার এস আই মহি উদ্দিন, এ এস আই তোহির হোসেনসহ ৬ সদস্য বিশিষ্ট পুলিশ টিম বৃহস্পতিবার রাতে দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ থানা এলাকায় অভিজান চালিয়ে আসামিদ্বয়কে গ্রেফতার করেন। উল্লেখ্য যে, বাড়ীর সীমানা নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্য সৃষ্ট বিবাদ মিমাংসায় গত ২৭ আগষ্ট বাড়ির উঠানে সালিশ চলাকালিন কথাকাটাকাটির একপর্যায় ক্ষিপ্ত হয়ে আসামিদের ছুরিকাঘাতে মুন্টু খুন হয়। নিহত মুন্টু ও আসমি উক্ত গ্রামের ইশারত আলী ওরফে এছা প্রামানিকের পুত্র।

About

আরও পড়ুন...

দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর খুলে দেয়া হল সকল প্রকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

যেখানে ছিল পিন পতন নিস্তব্ধতা, সেই নিস্তব্ধতা আর নীরবতা পেরিয়ে আজ সেখানে শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত …

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ