Home / প্রবাস / বঙ্গবন্ধু বেচে থাকলে আমাদের প্রবাসে আসতে হত না

বঙ্গবন্ধু বেচে থাকলে আমাদের প্রবাসে আসতে হত না

১৫ আগষ্টে বঙ্গবন্ধুকে শহিদ করা হয়নি, শহিদ করা হয়েছে মানবতাকে। বঙ্গবন্ধুকে শহিদ করে তার খুনীরা ক্লান্ত হয়নি এখনো তার কন্যাকে হত্যা করার নীল নকশা একেঁ যাচ্ছেন বারবার। তারা বারবার হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন এরেকটি ১৫ আগষ্ট করা হবে। আওয়ামী লীগের প্রতিটি কর্মী এক একটি ফিনিক্স পাখির মতো আগুনে যতবার জ্বালাবে ততবার ফিরে পায় নতুন প্রাণ। তাই ১৫ আগষ্টের শোককে শক্তিতে পরিনত করে আগামী দিনের প্রধানমন্ত্রীর দেয়া সকল কর্মসূচীকে বাস্তবায়ন করে ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে দেশ ও প্রবাস থেকে একযুগে কাজ করার অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন আবুধাবী আওয়ামী যুব লীগের নেতারা। বক্তরা আরো বলেন আজ বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে আমাদের কে প্রবাসে এসে কাজ করতে হত না। উন্নত বিশ্বের একটি মডেল দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে পরিচয় করতো বঙ্গবন্ধু। তাকে দেশ ও আন্তর্জাতিক ষঢ়যন্ত্রের মাধ্যমে শহিদ করা হয়েছে। তাই তার বাকি খুনীদের ফাঁসির রায় কর্যকর দেখতে চায় প্রবাসী আওয়ামী লীগেরা।

গতকাল আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবীত আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে ১৫ আগষ্ট বঙ্গবন্ধুর ৩৯ তম শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ বশির ভূঁইয়া’র সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মুহাম্মদ রাসেলের পরিচালনায় প্রধান অতিথির হিসেবে বক্তব্য করেন আবুধাবী আওয়ামী লীগের সভাপতি মুহাম্মদ ইউসুফ, প্রধান বক্তা আমিরাত যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম শফিকুল ইসলাম, আবুধাবী আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা শাহ আলম ভুঁইয়া, সহ সভাপতি নুরুল আলম, শহিদুল ইসলাম শহিদ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সোহেল মাঝি, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ চৌধুরী, আজমান যুবলীগের সভাপতি প্রকৌশলী এনামুল হক, আবুধাবী যুবলীগের সহ সভাপতি মুহাম্মদ আক্তার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ মামুন, প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম, ইসমাঈল শেখ, আমীর হোসেন, আব্দুল্লাহ আল-মামুন, তোফায়েল আহমদ সেলিম, নুরুন নবী, সহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

মুহাম্মদ রফিক উল্লাহ্‌

আরব আমিরাত

About

আরও পড়ুন...

কুয়েতে আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবসে পুরস্কৃত সর্বোচ্চ রেমিটেন্স প্রেরণকারী

কুয়েত থেকে সর্বোচ্চ রেমিটেন্স প্রেরণকারীদের পুরস্কৃত করার মধ্য  দিয়ে কুয়েতে আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস পালিত হয়েছে। …

error: Content is protected !!