Home / দেশ / বিনা’র বিজ্ঞানীরা দক্ষতার সাথে গবেষণা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

বিনা’র বিজ্ঞানীরা দক্ষতার সাথে গবেষণা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

বিনা’র অভিষেক অনুষ্ঠানে  কৃষি সচিব বিনা’র বিজ্ঞানীরা খাদ্য নিরাপত্তার নানা মূখী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সততা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার সাথে গবেষণা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন
মোশাররফ হোসেন শুভ, ময়মনসিংহ থেকে: জনসংখ্যার ক্রমবৃদ্ধি ও জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে দেশে খাদ্য নিরাপত্তার নানা মূখী চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্যে বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) র বিজ্ঞানীরা সততা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার সাথে গবেষণা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন এবং  আশাকরি এই গবেষণা ক্রমেই জোরদার করে দেশের খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধিসহ কৃষকের আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নয়নে ভূমিকা রাখবেন। বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিজ্ঞানী সমিতি (বিনাসা)’র নব নির্বাচিত কর্মপরিষদের অভিষেক ও সেমিনার অনুষ্ঠানে গতকাল দুপুর ১২টায় বিনা অডিটরিয়ামে কৃষি মন্ত্রণালযের সচিব মনজুর হোসেন এই আশাবাদ ব্যাক্ত করেন। তিনি বলেন, বিনাসা’র নব নির্বাচিত বিজ্ঞানী কর্মকর্তারা নতুনদের গবেষণা কাজে আরো উৎসাহ যোগাবে। তিনি আরো বলেন, বিনা পরমাণু শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহারের মাধ্যমে উদ্ভিদের বংশগতি ধারার পরিবতর্নের মাধ্যমে নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন করে কৃষকের নিকট হস্তান্তর করছে। এতে আধুনিক ,দক্ষ, টেকসই ও পরিবেশ বান্ধব রপ্তানীযোগ্য কৃষি ব্যবস্থা গড়ে তুলে জনগনের দীর্ঘ,মেয়াদী খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চেত করনের লক্ষে বিনা নিরলসভাবে কাজ  করে যাচ্ছে। আমি আশাকরি বিনাসা’র কর্মকর্তারা বিনা’র এই কর্মকান্ডকে আরো বেগবান করবে। অভিষেক অনুষ্ঠানে বিনাসা’র নব নির্বাচিত সভাপতি ড. মনোয়ার করিম খানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিনা’র মহা পরিচালক ড. এম এ  সাত্তার, পরিচালক প্রশাসন ড. এ এইচ এম রাজ্জাক, পরিচালক গবেষণা ড.এম এ সালাম প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন বিনাসা’র নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ড. ইমতিয়াজ উদ্দিন। বিনাসা’র নব নির্বাচিত সভাপতি ড. মনোয়ার করিম খান অনুষ্ঠানে বিনা’র গবেষণা কার্যক্রম, ভবিষ্যত পরিকল্পনা ও কর্মসাফল্য বিষয়ক এক সচিত্র প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন। তিনি তার বক্তব্যে বিনা’র কার্যক্রমকে আরো বেগবান করে সর্বোচ্চ গবেষণার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত করার অঙ্গীকার করেন। ড. মনোয়ার করিম তার বক্তব্যে উপস্থিত কৃষি সচিবের দৃষ্টি আকর্ষন করে বিনায় দীর্ঘদিন ধরে যেসব অচল অবস্থা বিরাজ করছে তার অবসানে সচিবের হস্তক্ষেপ কামনা করেন । বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তাদের পদোন্নতি, নিয়োগ ও কর্মক্ষেত্র সংক্রান্ত সমস্যা নিরসনের জোর দাবি জানান। এছাড়াও  গবেষণা খাতে বরাদ্ধ বাড়ানোরর দাবি জানান তিনি। অভিষেক অনুষ্ঠানে বিনাসার নব নির্বাচিত কর্মপরিষদ সদস্যদের শপথ বাকব্য পাঠ করান বিনাসা’র নির্বাচনের নির্বাচন  কমিশনার ড. শরীফুল হক ভূঞাঁ। বিনাসা’র পক্ষ থেকে অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিদের ক্রেস্ট প্রদান করা  হয়।

শিক্ষকদের দাবী আদায় না হলে অচিরেই সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তালা ঝুলবে
ময়মনসিংহে বেসরকারী শিক্ষক কর্মচারীদের শিক্ষক ধর্মঘট -বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত শিক্ষকদের দাবী আদায় না হলে অচিরেই সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তালা ঝুলবে
মোশাররফ হোসেন শুভ, ময়মনসিংহ থেকে ॥ বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির ময়মনসিংহ জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ বলেছেন, শিক্ষকদের দাবী মানা না হলে অচিরেই সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তালা লাগিয়ে দেয়া হবে। স্কুলে ক্লাস করবো না রাস্তায় থাকবো। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, শিক্ষকরা নিজেদের সন্তানদের কথা ভাবেন না, মানুষের সন্তানকে লেখা পড়া করান। তাদের দাবী পুরন হওয়ার কথা সবার আগে। নেতৃবৃন্দ বলেন, শিক্ষকদের দাবী পুরনের আন্দোলন হচ্ছে, এ সময় কোন শিক্ষককে হয়রানী করা হলে তার দাঁত ভাঙ্গা জবাব দেয়া হবে। তাঁরা বলেন, দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। আগামীতে কঠোর কর্মসুচী আসছে। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, শিক্ষক সমাজের সাথে দেয়া ওয়াদা পুরন না করে সরকার বিশ্বাস ঘাতকতা করেছে। নেতৃবৃন্দ দ্বায়িত্বে অবহেলার জন্য শিক্ষা মন্ত্রীর পদত্যাগ দাবী করেন। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সারা দেশে ৫ লাখ শিক্ষক রয়েছে, তাদের দাবী মেনে নেন, নয়ত তাদের আস্তা সরকারের উপর থেকে তাঁরা উঠিয়ে নেবে। বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির ডাকে শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয় করনের লক্ষ্যে শিক্ষানীতি -২০১০ দ্রুত বাস্তাবায়ন, শিক্ষক-কর্মচারীদের সরকারী শিক্ষকদের সমপরিমান বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট, বাড়ী ভাড়া, উৎসবভাতা, মেডিকেল ভাতা প্রদান এবং চাকুরীর বয়স ৬৫ বছর করা সহ ১৭ দফা দাবি আদায়ের লক্ষে গতকাল সারা দেশের সকল বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধর্মঘট কর্মসূচীর অংশ হিসাবে ময়মনসিংহ জেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বত:স্ফুর্ত ধর্মঘট পালিত হয়। শিক্ষকরা মুকুল নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে জমায়েত হয়। পরে ময়মনসিংহ রেলওয়ে ষ্টেশন কৃষ্ণচুড়া চত্তরে সমাবেশ করে। সমাবেশ শেষে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহর প্রদক্ষিন করে নতুন বাজাররস্থ ময়মনসিংহ মহাবিদ্যালয়ের সামনে রাস্তায় বসে সমাবেশ করে। সমাবেশে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ময়মনসিংহ জেলা শাখার সভাপতি মো: আবু বকর সিদ্দিক এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন আঞ্চলিক শাখার সাধারন সম্পাদক দুকুল চন্দ্র দেব, জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক মো: চাঁন মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: মোতাহার হোসেন, দপ্তর সম্পাদক মো: গোলাম হক, সদর উপজেলা শাখার সভাপতি জাফর আহম্মেদ চৌধুরীর, ভালুকা শাখার সভাপতি মো: আব্দু রশিদ, ত্রিশাল শাখার সাধারন সম্পাদক অবিনাশ চন্দ্র দাস, হালুয়াঘাট শাখার সভাপতি মো: আক্কাস আলী, ফুলবাড়ীয়া শাখার সভাপতি মো: আব্দুল হাই, আঞ্চলিক নেতা (মুক্তাগাছা) মো: আব্দুল মালেক, ফুলপুর শাখার আহবায়ক মো: রুকুন উদ্দিন, নান্দাইল শাখার সাধারন সম্পাদক মো: হাবিবুর রহমান, গৌরীপুর শাখার সভাপতি মো: এনামুল হক সরকার, গফরগাঁও শাখার সদস্য সচিব মো: আকবর হোসেন, ইশ্বরগঞ্জ শাখার যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মো: মতিউর রহমান, শিক্ষক নেতা (গফরগাঁও) মো: জসিম উদ্দিন, শিক্ষক নেত্রী আনোয়ারা সুলতানা আনু, মোছা: পারভীন আক্তার রেবা, মোছা: অহনা নাসরিন প্রমুখ। সভা পরিচালনা করেন শিক্ষক সমিতি জেলা শাখার যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মো: আতাউর রহমান খোকা ও সদর শাখার সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন । বক্তব্য প্রদান কালে নেতৃবৃন্দ আগামী দিনে শিক্ষকদের লাগাতর আন্দোলনের হুমকি প্রদান করেন। বেসরকারী শিক্ষক কর্মচারীদের দাবী আদায়ের লক্ষে বিভিন্ন সময় সভা, সেমিনার, সাংবাদিক সম্মেলন, মানব বন্ধন, উপজেলা, জেলা, আঞ্চলিক, বিভাগীয় ও জাতীয় শিক্ষক সমাবেশ এবং সারাদেশে এক দিনের কর্মবিরতি পালনসহ বিভিন্ন পর্যায়ে স্মারকলিপি প্রদান করলেও সরকার  শিক্ষক কর্মচারীদের যৌক্তিক দাবী সমুহের প্রতি কর্নপাত করেনি। তাই ১৭ দফা দাবী আদায়ের লক্ষে বাংলাদেশ শিক্ষক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ গত ২৫ জুলাই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সমাবেশ থেকে আন্দোলনের কর্মসুচী ঘোষনা দেয়। কেন্দ্রীয় কর্মসুচীর অংশ হিসাবেই  ৩ ও ৪ জুলাই ধর্মঘট অনুষ্ঠিত হয়। বেসরকারী শিক্ষক কর্মচারীদের দাবী আদায়ের লক্ষে শিক্ষক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ ঘোষিত কর্মসূচী পালন করায় ময়মনসিংহ জেলা শাখার সকল পর্যায়ের বেসকারী শিক্ষক কর্মচারীদের প্রতি কৃতঞ্জতা প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ময়মনসিংহ জেলা শাখার সভাপতি মোঃ আবু বকর সিদ্দিক ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ চাঁন মিয়া।

ম্যাক্সিম ময়মনসিংহ অফিসে সূধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত
মোশাররফ হোসেন শুভ, ময়মনসিংহ থেকে ॥ গতকাল বুধবার ম্যাক্সিম কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ ময়মনসিংহ অফিসের উদ্যোগে এক সুধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়। ম্যাক্সিম ঢাকা-৪ অঞ্চলের আঞ্চলিক প্রধান শেখ আব্দুল্লাহ আল মেহদীর সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ম্যাক্সিম গ্র“পের প্রতিষ্ঠাতা ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান। এতে বক্তব্য রাখেন ম্যাক্সিম গ্র“প এর পরিচালক শেখ আবু সাদী, ম্যাক্সিম এর ডিপোজিটর মোঃ মুনীর, সাংবাদিক এ জেড এম ইমাম উদ্দিন মুক্তা, দৈনিক নয়াদিগন্ত ময়মনসিংহ অফিস ইনচার্জ সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম, সাংবদিক নিয়ামুল কবির সজল, দৈনিক যুগান্তর এর ময়মনসিংহ জেলা প্রতিনিধি আতাউল করিম খোকন, দৈনিক আজকের ময়মনসিংহ এর সম্পাদক শামসুল আলম খান, ম্যাক্সিম ঢাকা-৪ অঞ্চলের আঞ্চলিক প্রধান এবং পরিচালক শেখ আব্দুল্লাহ্ আল মেহ্দী, প্রাইম সেন্ট্রাল কলেজ এর অধ্যক্ষ মোঃ সামছুল বারী, ম্যাক্সিম এর উপদেষ্টা ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শাহ্ সাইফুল আলম পান্নু, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক গিয়াস উদ্দিন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ম্যাক্সিম ময়মনসিংহ অফিসে ব্যবস্থাপক মোঃ মনোয়ার হোসেন। অনুষ্ঠানে গ্রাহকদের উপস্থিতিতে সমবায়ের প্রসার এবং ম্যাক্সিম কো-অপারেটিভ এর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়।

About

আরও পড়ুন...

চট্টগ্রামে ক্যাব’র উদ্যোগে জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার সাথে অ্যাডভোকেসী সভা অনুষ্ঠিত

চট্টগ্রামে ক্যাব’র উদ্যোগে জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার সাথে অ্যাডভোকেসী সভা অনুষ্ঠিত। ভোক্তাদের মাঝে শিক্ষা ও …

error: Content is protected !!