Home / দেশ / বীজ বিস্তার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে পাবনা ঈশ্বরদীতে নারীদের ক্ষমতায়ন নিয়ে মতবিনিময়

বীজ বিস্তার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে পাবনা ঈশ্বরদীতে নারীদের ক্ষমতায়ন নিয়ে মতবিনিময়

মোবারক বিশ্বাস ঃ প্রাণ সম্পদ সংরক্ষন ও ব্যবহারের ক্ষেত্রে নারীদের ক্ষমতায়ন নিয়ে নারী প্রধান উন্নয়ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মত বিনিময় অনুষ্ঠান ঈশ্বরদীতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত রবিবার বে-সরকারি উন্নয়ন সংস্থা বীজবিস্তার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈশ্বরদী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এই মতবিনিময় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। মতবিনিময় অনুষ্ঠানে পাবনা ও নাটোর জেলার বিভিন্ন নারী প্রধান উন্নয়ন সংগঠনের কর্মকর্তা ও সদস্যগন মতবিনিময় করেন। ঈশ্বরদী প্রেসক্লাবের সভাপতি আলাউদ্দিন আহমেদ’র সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বীজবিস্তার ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় ট্রেজারার পলাশ বড়াল, উবিনীগ, নয়াকৃষি আন্দোলন ও বীজবিস্তার ফাউন্ডেশনের ঈশ্বরদীর সমন্বয়ক জয়নাল আবেদীন খান, ঈশ্বরদী প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক মোস্তাক আহমেদ কিরন, সাপ্তাহিক ঈশ্বরদীর সম্পাদক ও সমকাল প্রতিনিধি সেলিম সরদার, সূচীতার নির্বাহী পরিচালক নাসরীন পারভীন, নকশীকাঁথার নির্বাহী পরিচালক সাবিনা ইয়াসমীন, নাটোরের সচেতন সহায়তা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক আফরোজা বেগম, সাংবাদিক সেলিম আহমেদ। অনুষ্ঠানে বীজবিস্তার ফাউন্ডেশন কুষ্টিয়ার সমন্বয়কারী মোজাহিদুল ইসলাম, ঈশ্বরদীর যোয়াকিম মাং সাং, নূরে আলম সিদ্দিক মাসুদ, কারিমা খাতুন লিলি, মর্জিনা খাতুনসহ শতাধিক নারীরা অংশগ্রহণ করেন।

পাবনা ভাঙ্গুড়ার ময়দানদীঘিতে শিশু ধর্ষণঃ ধর্ষক গ্রেফতার
মোবারক বিশ্বাস ঃ পাবনার ভাঙ্গুড়ার উপজেলার খান মরিচ ইউনিয়নের দোহারী গ্রামের আবুল খায়েরের শিশু খাজিদা খাতুন (০৫) কে শনিবার সন্ধ্যায় ময়দানদীঘি হাটে ধর্ষণ করেছে একই ইউনিয়নের শিয়ালবাড়ী গ্রামের রেজাউল হোসেনের পুত্র আঃ আলিম (২২)। ঘটনার বিবরণে জানা যায় চাচা আবু জাফরের সাথে ধর্ষিতা খাজিদা খাতুন ও সমবয়সী চাচাতো বোন শনিবার বিকালে ময়দানদীঘি হাটে বাজার করার জন্য যায়। চাচা ময়দানদীঘি ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের বারান্দায় দু’জন কে রেখে বাজার করার জন্য হাটের ভিতরে যায়। বারান্দায় বসা অবস্থায় খাদিজা প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ভবনের পিছনে গেলে ধর্ষক আঃ আলিম মুখ চেপে ধরে ভবনের পিছনেই ধর্ষণ করে। খাদিজা চিৎকার করে কাঁদতে থাকলে হাটের লোকজন গোঙ্গানি শব্দ পেয়ে ভবনের পিছনে গেলে ধর্ষক পলায়ন করে। এমতাবস্থায় হাটের লোকজন ধাওয়া করে ধর্ষক কে ধরে ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে আটকিয়ে রাখে। স্থানীয় লোকজন ধর্ষককে ধরে ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ করে। শিশুকে রাত ৮ টায় ভাঙ্গুড়া স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে ভর্তি করা হয়। ধর্ষীতার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত ডাক্তার রাত ১১ টায় শিশুটিকে পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগে রেফার্ড করেন। শিশুটির অবস্থা আশংকাজনক । শনিবার রাতে ধর্ষিতার বাবা আবুল খায়ের  ২০০০ সালের পারিবারিক শিশু ও নারী নির্যাতন-৩ ধারায় মামলা করেছে।

About

আরও পড়ুন...

ভ্যাকসিন প্রাপ্তির তালিকায় বিদেশগামী কর্মীরা

কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন প্রাপ্তির তালিকায় অগ্রাধিকার প্রাপ্ত বিদেশগামী কর্মীদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। iপ্রবাসী কল্যাণ ও …

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ