Home / শীর্ষ সংবাদ / বেনাপোলে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন কারিগররা

বেনাপোলে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন কারিগররা

মোঃ রাসেল ইসলাম,বেনাপোল প্রতিনিধি: দূর্গা পূজাকে সামনে রেখে বেনাপোলের পূজা মন্ডপ গুলোতে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা শিল্পীরা।দিন-রাত পরিশ্রম করে নিপুণ হাতে তৈরি করছেন প্রতিমা। এদিকে আয়োজকরা বলছেন করোনার কারণে এ বছর স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সকল মন্ডপে পূজা উদযাপন করা হবে।

আগামী (২১ শে অক্টোবর) ৬ ষ্ঠীর মধ্যে দিয়ে শুরু হবে শারদীয় দুর্গোৎসব। দেবীর আগমনকে ঘিরে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা শিল্পীরা। ইতি মধ্যে বেশির ভাগ মন্ডপ গুলোতে প্রতিমার মাটির কাজ এবং রঙের কাজও প্রায় শেষ পর্যায়ে। প্রতিটি মন্দিরে থাকবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হাত ধোয়ার জন্য থাকবে সাবান- পানির ব্যবস্থা। বিতরণ করা হবে মাস্ক। পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবারের উৎসব হবে জৌলুসহীন।

প্রতিমা শিল্পী কানাই লাল সরকার জানান, করোনার কারনে অন্য বছরে মত আমরা প্রতিমা তৈরি কাজ করতে পারিনি।এবছর মোট চার টা প্রতিমা দুইটার কাজ কমপ্লিট করেছি আর দুইটা বাকি আছে।এখন রঙের কাজ পুরোপুরি চলছে। অল্প দিনের ভিতরে প্রতিমা তৈরির কাজ করছি। রাতেও কাজ করতে হচ্ছে আমাদের।

এদিকে স্থানীয় পূজা মন্ডপের সদস্যরা বলেন, সরকারের দেওয়া নির্দেশনা মেনে এবার পূজা উদযাপন হবে। সকল প্রকার স্বাস্থ্য বিধি মেনে পালন হবে আসন্ন শারদীয়া দূর্গা পূজা। প্রশাসন এবং সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন পূজা কমিটি’র সকল সদস্যরা।

এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) বলেন, আসন্ন শারদীয়া দূর্গা পূজায় বেনাপোল থানা এলাকায় মোট ৯টি মন্ডপে পূজা উৎসব পালন হবে।আমাদের জেলা পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেন পিপি,এম স্যারের সার্বিক নির্দেশনায় সর্বোচ্চ নিরাপত্তার ব্যবসা আমরা করবো।

About বাংলার বার্তা

আরও পড়ুন...

Chinmaya Foundation’s Day Number 531 & 532 For Corona Awareness and Relief Distribution Program Continue.

A leading social welfare people’s organization in Babalpur of Jajpur district, the Chinmaya Foundation has …

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ