Home / দেশ / ময়মনসিংহ জেলা জজসীপকে একটি মডেল হিসাবে গড়ে তুলতে হবে

ময়মনসিংহ জেলা জজসীপকে একটি মডেল হিসাবে গড়ে তুলতে হবে

মো: সেলিম আকন্দ॥ ময়মনসিংহের জেলা ও দায়রা জজ মো: নুরুল হুদা বলেছেন, ময়মনসিংহ জেলা জজসীপকে একটি মডেল হিসাবে গড়ে তুলতে হবে। ২০০১ সাল হতে ২০০৫ সালের মামলা শেষ করার চেষ্টা করবো খুব শিগ্রই ইনশাল্লাহ। তিনি আইনজীবীদের উদ্দেশ্যে বলেন, মামলা দ্রুত শেষ হয়ে গেলে আইনজীবীদের পেশার ক্ষতি হবে না। তিনি আরো বলেন, মানুষ অনেক সময় মামলা দিয়ে ভয় পায়, কত বছর বিচারের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। তিনি বলেন, ১৯৮২ সনে মামলা করে আসামীরা আজও ঘুরছে, এটি কত বড় নির্মমতা । জেলা জজ আরো বলেন, মামলা করার পর বাদী যদি ৪০ বছর যাবৎ তারিখ নিয়ে ফিরে তবে এটি খুবই নির্মমতা। অনেক কষ্ট করে মানুষ আদালতে আসে, ফেরার সময় তারিখ নিয়ে যায়, এটি খুবই দু:খের বিষয়। মানুষের আস্তা ফিরিয়ে আনার জন্য তাদের দ্রুত ন্যায় বিচার দিতে হবে। আসুন আমরা সকলে ন্যায় বিচার মুখী হই। তিনি আরো বলেন, মামলা দ্রুত নিস্পত্তি করতে হলে তিন পক্ষ এক মুখী হতে হবে। সাভার ট্রেজেডি খুব খারাপ হলেও ৩ হাজার জীবিত মানুষ উদ্ধার করে ভাল কাজ করেছে। তিনি বিচার দ্রুত নিস্পত্তি করার জন্য আইনজীবীদের প্রতি অনুরোধ জানান। ময়মনসিংহে মামলা মোকদ্দমা দ্রুত বিচার নিস্পত্তির লক্ষে বিঞ্জ বিচারক ও আইনজীবীদের যৌথ মত বিনিময় সভা জেলা আইনজীবী সমিতির এডভোকেট আমিনুল ইসলাম মিলনায়তনে গতকাল বিকালে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ময়মনসিংহ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট কবির উদ্দিন ভুইয়া এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলার বিঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ মো: নুরুল হুদা। মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা জজ মিসেস সুমিয়া খানম, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য এডভোকেট এম জুবেদ আলী, সাবেক সভাপতি এডভোকেট আনিসুর রহমান খান, জেলার পিপি এডভোকেট ওয়াজেদুল ইসলাম, ডিপি এডভোকেট আনোয়ার হোসেন খান প্রমুখ। মতবিনিময় সভা পরিচালনা করেন আইনজীবী সমিতির সাধারন সম্পাদক এডভোকেট মো: ফজলুল হক। এসময় চীফ জুডিশিয়াল ইমরোল কায়েস, যুগ্ন জেলা জজ মো: মোরাদে মওলা সোহেল, মো: এহসানুল হক, এজিএম আল মাসুদ, মো: নুরুল আমীন বিপ্লব, মো: মাসুদ পারভেজ, সিনিয়র সহকারী জজ মিসেস ইসমত জাহান, মিসেস সাবিনা ইয়াসমিন, অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো: হাফিজুর রহমান, জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার মো: আব্দুল হালিম, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো: রফিকুল ইসলাম, সিনিয়র সহকারী জজ মো: আশরাফুজ্জামান জিলানী, মো: আবু বকর সিদ্দিক, মো: আল আমিন, মো: ওয়াইজ কোরনী খান চৌধুরী, মো: রাশেদুজ্জামান, সহকারী জজ আহসান মো: রুমান, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো: নাইম ফিরোজ, সিনিয়র আইনজীবী এডভোকেট বিকাশ চন্দ্র রায়, এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন, এডভোকেট মো: মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, এডভোকেট মো: জালাল উদ্দিন, এডভোকেট বাধন কুমার গোস্বামী, এডভোকেট আবুল কালাম আজাদ, এডভোকেট শেখ আবুল হাশেম, এডভোকেট পিযুষ কান্তি সরকার, এডভোকেট মাহবুবুল আলম ফরিদ, এডভোকেট শফিকুল হক চুন্নু, এডভোকেট মোখলেছুর রহমান কেনান, এডভোকেট নুরুল হক, এডভোকেট এনায়েতুর রহমান, এডভোকেট আলী রেজা ফজলুল হক বাবলু, এডভোকেট মিজানুর রহমান, এডভোকেট আবুল কাশেম, এডভোকেট নজরুল ইসলাম চান্নু, এডভোকেট শিব্বীর আহমেদ লিটন, এডভোকেট প্রশান্ত কুমার দাস চন্দন, এডভোকেট স্বপন কুমার মিস্ত্রী সহ জেলা আইনজীবী সমিতির শতাধিক আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন।

About

আরও পড়ুন...

ভ্যাকসিন প্রাপ্তির তালিকায় বিদেশগামী কর্মীরা

কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন প্রাপ্তির তালিকায় অগ্রাধিকার প্রাপ্ত বিদেশগামী কর্মীদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। iপ্রবাসী কল্যাণ ও …

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ