Home / বিশ্ব / রবিবার সকালে ঢাকায় পৌঁছাবে বন্দিদশা থেকে মুক্ত পাঁচ বাংলাদেশি

রবিবার সকালে ঢাকায় পৌঁছাবে বন্দিদশা থেকে মুক্ত পাঁচ বাংলাদেশি

মঈন উদ্দিন সরকার সুমন: অবশেষে দেশে ফিরছেন ইয়েমেনে হুতি বিদ্রোহীদের হাতে বন্দি পাঁচ বাংলাদেশি। ১০ জানুয়ারী সকাল ০৭:২০ ঘটিকায় বিমানের বিজি ৪৮ ফ্লাইটে করে ঢাকায় পৌঁছানোর খবর সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন কুয়েতস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস।

বাংলাদেশ দূতাবাস কুয়েতের প্রচেষ্টার ফলে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) এর সহযোগিতায় ৯ জানুয়ারী দুপর ( ১২:৪৫ ঘটিকায়) ইয়েমেন থেকে সন্ধ্যা ৬:৩০ ঘটিকায় দুবাই পৌঁছায়। দুবাই থেকে বিমানের বিজি ৪৮ ফ্লাইটে সরাসরি বাংলাদেশের উদ্যেশে রওয়ানা দেবেন তারা।

মুলত গতবছর ২০২০ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারী ওমানে কর্মরত অন্যদের সাথে
এই পাচঁ বাংলাদেশী সমুদ্রপথে সৌদি আরব যাওয়ার পথে লোহিত সাগরের প্রাকৃতিক দূর্ঘটনার কবলে পড়ে ইয়েমেনে বন্ধি ছিলেন।
পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের সার্বিক নির্দেশনায় বাংলাদেশ দূতাবাস কুয়েত, ওমান এবং জর্ডানের সমন্বিত প্রচেষ্টায় দীর্ঘ নয় মাস পর বন্দিদশা থেকে মুক্তি পান তারা।
মুক্তি পেয়ে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা ‘র (আইওএম) হেফাজতে ছিলেন ।

মুক্তি পাওয়া পাঁচজন হলেন চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার মোহাম্মদ আবু তৈয়ব, মীরসরাইয়ের মোহাম্মদ রহিম উদ্দিন, মোহাম্মদ আলাউদ্দিন, মোহাম্মদ ইউসুফ ও মোহাম্মদ আলমগীর।

About banglarbarta.com

আরও পড়ুন...

কুয়েতে তরুন সফল উদ্যোক্তা

কুয়েতে সাধারণ এক গাড়িচালক হিসেবে প্রবাস জীবন শুরু। সেই থেকে কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে ধীরে ধীরে সফল ব্যবসায়ীতে পরিণত হয়েছেন । বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশ থেকে নিত্যব্যবহার্য পণ্য আমদানি করে এরই মধ্যে দেশটিতে বিশাল বাজার তৈরি করে ফেলেছেন তরুণ এই প্রবাসী।শরীফ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।।  মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম (৩৮)। বন্ধুরা তাঁকে সম্মান করে মুফতি নামে ডাকেন। গ্রামের বাড়ি পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার বেকুটিয়া গ্রামে। শহিদুল ইসলামের বাবা মুহাম্মদ সুলতান আলী পেশায় একজন কৃষক। বাংলাদেশে থাকার সময় শহিদুল ইসলাম রাজধানীর মিরপুরের মাদ্রাসা দারুল উলুম থেকে দাওরায়ে হাদিস বিষয়ে পড়াশোনা করেন এবং সর্বোচ্চ ডিগ্রি মুফতি উপাধি অর্জন করেন। এরপর কিছুদিন দেশে একটি মাদ্রাসায় শিক্ষকতাও করেন তিনি। শহিদুল ইসলাম জানান, ২০০৫ সালে কুয়েতে এসে কুয়েতি  নাগরিকের ওখানে গাড়িচালক হিসেবে তিনি দুই বছর কাজ করেন। সে কাজের সূত্রে কুয়েতের বিভিন্ন স্থান ও বাজার সম্পর্কে পরিচিত হন তিনি। পরে গাড়ি চালানো বাদ দিয়ে তিনি কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে বিক্রয়কর্মীর চাকরি  করেন।  পাশাপাশি ছোট খাট …

error: Content is protected !!