Home / দূতাবাস / লিবিয়ার মান্যবর রাষ্ট্রদূত মহোদয়ের বেনগাজী সফর

লিবিয়ার মান্যবর রাষ্ট্রদূত মহোদয়ের বেনগাজী সফর

মধ্যপ্রাচ্য ডেস্কঃ লিবিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর বেনগাজীসহ পুর্বাঞ্চলীয় শহরগুলোতে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বাংলাদেশি নাগরিক দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছেন। কিন্তু লিবিয়ার বর্তমান পরিস্থিতিতে বেনগাজীসহ পূর্বাঞ্চল থেকে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিভিন্ন সেবার জন্য ত্রিপলীতে বাংলাদেশ দূতাবাসে আগমন করা ঝুঁকিপূর্ণ। এই অবস্থায় মান্যবর রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল এস এম শামিম-উজ-জামান মহোদয় লিবিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসে যোগদান করার পরপরই বেনগাজীসহ লিবিয়ার পুর্বাঞ্চলে বসবাসরত প্রবাসীদের নিকট দূতাবাসের কন্স্যুলার ও কল্যাণ সেবা পৌঁছে দেওয়ার বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেন। এ প্রেক্ষিতে মান্যবর রাষ্ট্রদূত মহোদয়ের নেতৃত্বে দূতাবাসের একটি প্রতিনিধি দল ০৮ আগস্ট থেকে ১৩ আগস্ট ২০২১ সময়ে বেনগাজী সফর করেন। তাঁর নেতৃত্বে দূতাবাসের প্রতিনিধি দল বেনিনা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌছালে বেনগাজীতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকগণের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানানো হয়। পরবর্তীতে মান্যবর রাষ্ট্রদূত মহোদয় লিবিয়ার বেনগাজীসহ পূর্বাঞ্চলে বসবাসরত প্রবাসীগণের সাথে পর্যায়ক্রমে মতবিনিময় করেন। এসময় তিনি প্রবাসীদের সুবিধা-অসুবিধা, বিভিন্ন সমস্যা, অবৈধ অভিবাসন এবং বাংলাদেশিদের কর্মসংস্থানের সম্ভাবনা সম্পর্কে অবহিত হন। মান্যবর রাষ্ট্রদূত সকলকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে দেশের স্বার্থ সংরক্ষণে মিলেমিশে কাজ করার আহ্বান জানান। এছাড়াও তিনি অবৈধ অবিভাসনের ফলে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হওয়া সম্পর্কে সকলকে সতর্ক করেন। অন্যদিকে মান্যবর রাষ্ট্রদূত মহোদয় লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলে বাংলাদেশিদের কর্মসংস্থান এবং বাংলাদেশের বিভিন্ন রপ্তানীযোগ্য পণ্যের বাজার সৃষ্টির লক্ষ্যে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এবং ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় করেন। এছাড়াও দূতাবাসের পক্ষ থেকে বেনগাজীসহ লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলে কর্মরত প্রবাসীদের কল্যাণ নিশ্চিত করতে স্থানীয় প্রশাসন, কোম্পানী এবং নিয়োগকর্তার সাথে বৈঠক করা হয়। উল্লেখ্য, এটি দীর্ঘ এক দশকের মধ্যে লিবিয়ার পূর্বাঞ্চল তথা বেনগাজীতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের দ্বিতীয় সফর। সফরকালে দূতাবাসের প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে বেনগাজী এবং তার আশেপাশের শহরে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকগণকে কন্স্যুলার ও বিভিন্ন কল্যাণ সেবা দেওয়া হয়। এই সময়ে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক প্রবাসী তাদের ডিজিটাল পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন, পূর্বে আবেদনকৃত ডিজিটাল পাসপোর্ট গ্রহণ, ট্রাভেল পারমিট (আউটপাস) গ্রহণ, দেশে ছুটিতে যাওয়ার প্রত্যয়নপত্র গ্রহণ, নতুন পাসপোর্টে ভিসার জন্য/হারানো পাসপোর্টের জন্য সার্টিফিকেট গ্রহণ এবং বিভিন্ন কাগজপত্র সত্যায়নের কার্যক্রম সম্পন্ন করেন৷ এছাড়াও প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে বেনগাজীর ডিটেনশন সেন্টারে আটক বাংলাদেশিদের পরিদর্শন করে তাদের প্রয়োজনীয় আইনগত সহায়তা প্রদান করা হয়। তাছাড়াও লিবিয়ার পূর্বাঞ্চল হতে স্বেচ্ছায় দেশে যেতে আগ্রহীদের ফেরত পাঠানোর জন্য দূতাবাসের প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এবং আইওএম এর সাথে প্রয়োজনীয় সমন্বয় করা হয়। লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলে বসবাসরত বাংলাদেশি নাগরিকগণ প্রয়োজনীয় কন্স্যুলার ও কল্যাণ সেবা বেনগাজীতে গ্রহণ করতে পেরে তারা মান্যবর রাষ্ট্রদূত মহোদয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন এবং ভবিষ্যতেও বেনগাজীতে দূতাবাসের সেবা অব্যাহত রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন।

About banglarbarta.com

আরও পড়ুন...

Chinmaya Foundation’s Day Number 531 & 532 For Corona Awareness and Relief Distribution Program Continue.

A leading social welfare people’s organization in Babalpur of Jajpur district, the Chinmaya Foundation has …

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ