Home / শীর্ষ সংবাদ / স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে কুয়েতে ভার্চুয়াল আলােচনা সভা

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে কুয়েতে ভার্চুয়াল আলােচনা সভা

কুয়েতস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস জানিয়েছে, গত রবিবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতীয় দিবস উদযাপনের অংশ হিসেবে জুম প্ল্যাটফর্মে ‘গোল্ডেন জুবিলি অব ইন্ডিপেন্ডেন্স অব বাংলাদেশ: আ থ্রাইভিং নেশন’ শীর্ষক ভার্চুয়াল আলােচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এ সভা সঞ্চালনা করেন কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশিকুজ্জামান। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন এশিয়া বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাষ্ট্রদূত আলি সুলাইমান আল-সাঈদ। মূল বক্তা হিসেবে আলােচনা অনুষ্ঠানে অংশ নেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু চেয়ার অধ্যাপক-চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর আতিউর রহমান। আলােচনা অনুষ্ঠানের শুরুতেই বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মােমেন এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মাে. শাহরিয়ার আলম-এর পাঠানো শুভেচ্ছা ভিডিও বার্তা দেখানো হয়। মূল বক্তা ড. আতিউর রহমান তার বক্তব্যে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাস এবং বাংলাদেশের সাথে কুয়েতের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নিয়ে আলােচনা করেন। 

এ সময় তিনি “কুয়েত ফান্ড ফর আরব ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট ” এর মাধ্যমে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে কুয়েতের অবদানের কথা তুলে ধরেন ।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় নেতৃত্বে বর্তমান সরকার দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রেখে অত্যন্ত সফলতার সাথে করােনা মােকাবিলা করছে। করােনাকালেও এশিয়ার সবগুলাে দেশের মধ্যে বাংলাদেশের জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৫ দশমিক ২৪ শতাংশ।

অনুষ্ঠানের উন্মুক্ত আলােচনা পর্বে অংশ নিয়ে কুয়েতে নিযুক্ত ভারত, ভুটান, শ্রীলংকা, নেপালের রাষ্ট্রদূত, কুয়েতে সেনেগাল ও ইয়েমেন দূতাবাসের উপ-মিশন প্রধান এবং কুয়েতের গণমাধ্যমের প্রতিনিধিরা বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে উঞ্চ অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান ।

বিশেষ অতিথি রাষ্ট্রদূত আলি সুলাইমান আল-সাঈদ তার বক্তব্যে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানান। পাশাপাশি এরকম অনলাইন আলােচনা অনুষ্ঠান আয়ােজনের জন্যে তিনি কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, “আগামী দিনগুলােতে বাংলাদেশ এবং কুয়েতের মধ্যে বিদ্যমান বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও জোরদার-শক্তিশালী হবে।”

প্রধান অতিথি আ হ ম মুস্তফা কামাল তার বক্তব্যে জাতির পিতা ও তার পরিবার, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদ এবং বীর মুক্তিযােদ্ধাদের গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যােগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশের বিস্ময়কর উন্নয়নের কথা তুলে ধরেন তিনি। এছাড়াও তিনি বিশেষ অতিথি এবং আলােচনায় অংশ নেওয়া সকলকে মূল্যবান মতামত দেওয়া জন্য ধন্যবাদ জানান। প্রধান অতিথি এ সময় বিদেশি অতিথিদের তাদের সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফরের জন্যে আমন্ত্রণ জানান।

প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি এবং আলােচনায় অংশগ্রহণকারী সকল অতিথিদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘােষণা করেন ভার্চুয়াল আলোচনা সভার সঞ্চালক রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশিকুজ্জামান। 

About বাংলার বার্তা

আরও পড়ুন...

Chinmaya Foundation’s Day Number 531 & 532 For Corona Awareness and Relief Distribution Program Continue.

A leading social welfare people’s organization in Babalpur of Jajpur district, the Chinmaya Foundation has …

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ