Home / দেশ / হালগড়া ফটিয়ামারী উচ্চ বিদ্যালয় অভিভাবক সদস্য নির্বাচন না করেই পুর্নাঙ্গ কমিটি, আদালতে মামলা ॥

হালগড়া ফটিয়ামারী উচ্চ বিদ্যালয় অভিভাবক সদস্য নির্বাচন না করেই পুর্নাঙ্গ কমিটি, আদালতে মামলা ॥

নাজমুল হক বাংলার র্বাতা জামালপুর প্রতনিধিঃি শেরপুর সদর উপজেলার ফটিয়ামারী ইউনিয়নের ফটিয়ামারী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবগঠিত কমিটি অভিভাবক সদস্য নির্বাচন না করে অবৈধভাবে ফটিয়ামারী উচ্চ বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটি গঠন করে অনুমোদনের জন্য শিক্ষাবোর্ডে প্রেরন করায় এলাকার উক্ত কমিটি বে আইনী ঘোষণার দাবিতে সিনিয়র সহকারী জর্জ আদালতে শেরপুর সদরে একটি মোকদ্দমা আনায়ন করা হয়েছে। মোকদ্দমা নং-৩৬৫/১১ অন্য। মোকদ্দমা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যাপ্ত বিগত ২৮/০২/১১ইং তারিখে নবগঠিত অবৈধ কমিটি পুর্নাঙ্গ করে যাতে কোন প্রকার প্রতারনা কার্যক্রম করতে না পারে সেই মর্মে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার দরখাস্ত দাখিল করা হয়েছে। জানা যায়. শেরপুর উপজেলাধীন হালগড়া ফটিয়ামারী উচ্চ বিদ্যালয় ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠার পর হইতে অত্র উপজেলার মধ্যে সুনামের মধ্যে সু-দীর্ঘকাল যাবৎ শিক্ষা দীক্ষা দান করে আসিতেছে। অত্র এলাকার শিক্ষার্থী ও ছাত্রছাত্রীসহ সুনামের এবং কৃতিত্বের সহিত বিভিন্ন উচ্চ পদস্থ পদে কর্মরত আছেন। দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকার শিক্ষা অনুরাগী ব্যক্তিবর্গের এবং ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবকগণ ম্যানেজিং কমিটি গঠন করিয়া নিষ্ঠার সহিত স্কুলের উন্নয়নে এবং ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষার মান বৃদ্ধির লক্ষে কাজ করিয়া আসিতেছে। সরকারের সাম্প্রতিক পুর্নাঙ্গ ম্যানেজিং কমিটি গঠন কল্পে প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী দেশের অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ন্যায় তপছিল বর্ণিত বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন কল্পে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু উক্তরূপ ভোটার তালিকা প্রস্তুত ব্যতিরেকেই এবং তপছিল ঘোষণা ব্যতিরেকেই বিবাদীগণ মনগড়াভাবে তাদের স্বার্থ চরিতার্থ করার হীন উদ্দেশ্যে স্কুলের অধ্যায়নরত ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবক ব্যতীত ২/৪/৫/৬ ও ৭নং বিবাদীদের অভিভাবক সদস্য নির্বাচিত করেন. যাহা বে-আইনী এবং এখতিয়ার বহিঃভূত। উক্ত বকিলে বিবাদীগণকে কোন নির্বাচন ছাড়াই কোন ভোটার তালিকা প্রকাশ না করিয়া নির্বাচনী তপছিল ঘোষণা না করিয়া বিনা প্রতিদন্দিতায় তাহাদিগকে নির্বাচিত করিয়া কমিটি গঠন করেন। শুধু তাই নয় শিক্ষকদের মাঝেও কোন নির্বাচন না করিয়া সকল বিবাদীগণ যোগসাজশক্রমে শিক্ষক প্রতিনিধি বিনা প্রতিদ্বন্দিতা ছাড়াই নির্বাচিত করেন। উক্ত যোগসাজশক্রমে বাদীর ইচ্ছা থাকা সত্বেও নির্বাচন করার সুযোগ হইতে বঞ্চিত হইয়াছে এবং সাধারণ অভিভাবকগণ তাহাদের মনগড়া অভিভাবক প্রতিনিধি ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে নির্বাচন করিতে ব্যর্থ হইয়াছেন। বাদী একজন অভিভাবক সদস্য। তাহার কন্যা অত্র বিদ্যালয়ের নিয়মিত ৬ ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী. যাহার রোল-১১। এমতাবস্থায় বিবাদীগণ স্কুলটি ধ্বংস করার জন্য এবং ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যত জীবন বিনষ্ট করার লক্ষে একটি মনগড়া ম্যানেজিং কমিটি গঠন করার চেষ্টায় লিপ্ত আছে। বিবাদীগন পরস্পর লোক মারফতে প্রকাশ করেন যে. বিগত ২৪/০৭/১১ইং তারিখ ২. ৪ ও ১০নং বিবাদী কর্তৃক অনুমোদন হবার পর পুনরায় বিগত ৩০/০৭/১১ইং তারিখ তাহাদের মনগড়াভাবে সভাপতি এবং অন্যান্য কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য নির্বাচন করিয়া ঘোষণা দিয়া মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড ঢাকা বরাবরে প্রেরন করিয়াছেন। এমতাবস্থায় বাদী এবং অন্যান্য অভিভাবক সদস্যগণ বিষয়টি অবহিত করার জন্য বিদ্যালয় পরিদর্শক. ময়মনসিংহ. জেলা শিক্ষা অফিসার. শেরপুর. চেয়ারম্যান মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড. জেলা প্রশাসক শেরপুর. উপজেলা নির্বাহী অফিসার. শেরপুর বরাবরে বিগত ০১/০৮/২০১১ইং এবং ০২/০৮/২০১১ইং ও ১০/০৮/২০১১ইং তারিখে দরখাস্ত প্রেরন করা হয়। কিন্তু ইহাতে বিবাদীগণের কু-উদ্দেশ্যে সাধরন হইতে বিরত রাখা সম্ভব হয় নাই। এই অবৈধ স্কুল কমিটি নিয়োগ প্রক্রিয়া কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

About

আরও পড়ুন...

বেনাপোলে এতিম শিক্ষার্থীদের মাঝে খবার মাস্ক ও কম্বল বিতরণ

মোঃ রাসেল ইসলাম,বেনাপোল প্রতিনিধি: ‘লাগলে নিয়ে যান, থাকলে দিয়ে যান’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে দেশসেরা …

error: Content is protected !!