আপডেট :»-
  বাংলা-

কুয়েতে কোকো’র প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে আরাফাত রহমান কোকো যুব ও ক্রীড়া সংসদ কুয়েত শাখার উদ্যোগে শোক সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

আল আমিন রানাঃ বিশেষ প্রতিনিধি-কুয়েত-শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের কনিষ্ট পুত্র প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকো’র প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে আরাফাত রহমান কোকো যুব ও ক্রীড়া সংসদ কুয়েত শাখার উদ্যোগে রবিবার রাত ৯টায় কুয়েত সিটির গুলশান হোটেলে  আলোচনা শোক সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয় ।  সংগঠনের সভাপতি জাকারিয়া আবেদীন এর সভাপতিত্বে ও কুয়েত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত প্রচার সম্পাদক আব্দুল কাদের এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কুয়েত বিএনপির সাধারন সম্পাদক প্রকৌশলী কাজী মঞ্জুরুল আলম,বিশেষ অতিথির আসন গহন করেন, বিএনপি কুয়েত শাখার যুগ্ন সম্পাদক আবুল হাসেম এনাম,সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন কবীর মাইমুন,যুবদল কুয়েতের সভাপতি মাহফুজুর রহমান,

অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন- শাহ জাহান সবুজ,মমিন উল্লা পাটোয়ারী, মোস্তাফিজুর রহমান,কোরবান আলী,শাহ আলম,মাহবুবুর রহমান, মোহাম্মদ , মোঃ এয়াছিন,সাংগঠনিক সম্পাদক,ফয়েজ উল্লাহ,সহ সভাপতি  মোয়াজ্জেম হোসেন, আরাফাত রহমান কোকো যুব ও ক্রীড়া সংসদ কুয়েত, কামাল হোসেন,শিমুল আহমেদ,আবু ছাইদ চৌধুরী প্রমুখ।

প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকো’র প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে বক্তারা বলেন-বাকশালী সরকারের নির্যাতন-নিপীড়ণই কোকাকে মৃত্যুর দিকে নিয়ে গেছে । আলোচনা শেষে দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা বেলায়েত হোসেন-

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৪ জানুয়ারি মালয়েশিয়ায় মৃত্যুবরণ করেন আরাফাত রহমান কোকো। তার বয়স হয়েছিল ৪৫ বছর। রাজধানীর বনানী কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

গত ১/১১তে জরুরি অবস্থার সময় গ্রেপ্তার হওয়া আরাফাত ২০০৮ সালের ১৭ জুলাই তৎকালীন সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের নির্বাহী আদেশে মুক্তি পাওয়ার পর চিকিৎসার জন্য থাইল্যান্ড গিয়েছিলেন। পরে সেখান থেকে মালয়েশিয়া যান তিনি। সেখানে তার সঙ্গে স্ত্রী সৈয়দ শর্মিলা রহমান সিঁথি, দুই মেয়ে জাফিয়া রহমান ও জাহিয়া রহমান ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ