Home / দেশ / খালেদার বক্তব্য রাজনীতির জন্য কলঙ্কজনক: আশরাফ

খালেদার বক্তব্য রাজনীতির জন্য কলঙ্কজনক: আশরাফ

মুন্সিগঞ্জে গত শুক্রবার বিরোধী দলের নেতা খালেদা জিয়ার দেওয়া বক্তব্যকে ‘অশালীন’ ও ‘বাংলাদেশের রাজনীতির জন্য কলঙ্কজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। তিনি বলেন, সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা ও মন্দির ভাঙার কলঙ্কের দায় খালেদা জিয়াকে নিতে হবে।
গতকাল শনিবার দলের ধানমন্ডির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সৈয়দ আশরাফ এই মন্তব্য করেন।
‘শাহবাগ আওয়ামী লীগ ঘরানার ও নাস্তিকদের মঞ্চ’ বলে খালেদা জিয়ার দেওয়া বক্তব্যের জবাবে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘শাহবাগে হাজার হাজার মানুষ, ছাত্রছাত্রী উপস্থিত ছিলেন। পাঁচ বছরের শিশু কি নাস্তিক? ১১ বছরের ছাত্রী কি নাস্তিক? তাঁর এই ঢালাও বক্তব্যের জন্য রাজনীতিবিদ হিসেবে আমি লজ্জিত।’ তিনি বলেন, ‘হাশরের মাঠে ঠিক হবে কে ধর্মকর্ম করেছেন আর কে করেননি। এটা সৃষ্টিকর্তা দেখবেন। খালেদা জিয়া কী করে জানেন, কে ধর্মে বিশ্বাস করেন আর কে করেন না?’
সৈয়দ আশরাফ দাবি করেন, খালেদা জিয়া ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন। তিনি ও তাঁর দুই ছেলের দুর্নীতির মামলা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য যেনতেনভাবে ক্ষমতায় যেতে চান। তিনি অভিযোগ করেন, সম্প্রতি যত মন্দিরে হামলা ও ভাঙচুর হয়েছে, তার অর্ধেকের বেশি ঘটিয়েছে বিএনপি। জামায়াত এত বড় শক্তি নয় যে এককভাবে তারা এত মন্দির ভাঙবে।
খালেদা জিয়ার সরকার পতনের হুমকির জবাবে সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘আওয়ামী লীগ জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকার। স্বৈরাচার সরকার নয় যে ফুঁ দিলেই উড়ে যাবে। নির্ধারিত সময়ের এক ঘণ্টা আগেও সরকার ক্ষমতা ছাড়বে না। মেয়াদের এক মিনিট আগ পর্যন্ত সরকার জনগণের জানমাল রক্ষায় সবকিছু করবে। যেকোনো অশুভ উদ্যোগ সরকার কঠোরভাবে দমন করবে।’
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আগের আমলের তত্ত্বাবধায়ক সরকার হওয়ার আর কোনো সুযোগ নেই। এখন নতুন কোনো ব্যবস্থাপনা করতে হলে নির্বাচিত ব্যক্তিদের নিয়েই করতে হবে। তিনি বলেন, ‘আলোচনার দরজা খোলা। খালেদা জিয়া প্রস্তুত থাকলে সরকার আলোচনার জন্য প্রস্তুত। তবে শর্ত দিয়ে আলোচনা হয় না।’
বিএনপির কার্যালয়ে পুলিশের অভিযান সম্পর্কে আশরাফ বলেন, ‘আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা হয়েছিল। ২৪ জনকে হত্যা করা হয়েছিল। এর চেয়ে জঘন্য ঘটনা কি আর ঘটেছে? ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে নেতা-কর্মীদের ঢুকতে দেওয়া হয়নি।’

About

আরও পড়ুন...

Chinmaya Foundation’s Day Number 531 & 532 For Corona Awareness and Relief Distribution Program Continue.

A leading social welfare people’s organization in Babalpur of Jajpur district, the Chinmaya Foundation has …

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ