আপডেট :»-
  বাংলা-

প্রেম করার সময় চারটি বিষয়ে সর্তক থাকুন

লাইফস্টাইল : ভালোবাসার সম্পর্ক ইদানিং যেন ছেলেখেলা হয়ে গিয়েছে। যে যার ইচ্ছা মত সম্পর্ক ভাঙছে এক মুহূর্তে, আবার পর মুহূর্তেই নতুন কারো সাথে গড়ছে। কাউকে বিশ্বাস করাই যেন হয়ে দাঁড়িয়েছে আজকাল। মুখে যে যতই ভালোবাসার কথা বলুক, প্রতারনা করার বেলায় সেসব কথা মনেই থাকছে না কারো। ‘সারাজীবন থাকবো’, ‘বিয়ে করবো’ এসব কথা বলা তো বেশ সহজ। কিন্তু এই অঙ্গীকার গুলো রক্ষা করতে পারছে কয়জন?আর এই প্রতারনার জালে পা ফেলে নিজের জীবন নষ্ট করছেন অনেক নারী। বিয়ে করে ঘর বাঁধার আশায় সঙ্গীকে বিশ্বাস করে নিজেকে বিলিয়ে দিচ্ছেন ভালোবাসার জন্য। কিন্তু সেই বিশ্বস্ত সঙ্গীটিই সুযোগ বুঝে তাঁকে একা ফেলে রেখে সম্পর্ক ভেঙ্গে ফেলছে। তাহলে কিভাবে বুঝবেন আপনার প্রেমিকের সাথে আপনার সম্পর্ক বিয়ে পর্যন্ত গড়াবে কিনা? আসুন জেনে নেয়া যাক ৪টি উপায়।

প্রাক্তন সব প্রেমিকাই খারাপ ছিলো
যে পুরুষ আপনাকে বুঝাতে চাইবে যে তার আগের সব গুলো সম্পর্কের ক্ষেত্রে প্রেমিকাই দোষী ছিলো কিংবা খারাপ ছিলো, তাদের থেকে সাবধান থাকাই ভালো। কারণ এই ধরনের পুরুষদের বিশ্বাস করাটা বোকামি ছাড়া আর কিছুই নয়। সেদিন দূরে নয় যেদিন আপনার এই প্রেমিকই তার ভবিষ্যত প্রেমিকার কাছে আপনার নামে বদনাম করবে এবং নিজের ভুল স্বীকার করবে না। এধরনের পুরুষরা সাধারণত ভালোবাসার ক্ষেত্রে সৎ হয় না এবং বিয়ের সম্পর্কে নিজেকে জড়াতে চায় না সহজে।

শারীরিক সম্পর্কে বেশি আগ্রহী
প্রেমের ক্ষেত্রে যারা শারীরিক সম্পর্কের ব্যাপারে বেশি আগ্রহী থাকে, নির্জন স্থানে অথবা খালি বাসায় নিয়ে যাওয়ার প্রস্তাব দেয়- তাদের থেকে দূরত্ব বজায় রাখুন। এ ধরণের পুরুষরা বিয়ের আগেই শারীরিক সম্পর্কে আগ্রহী থাকে কারণ তাঁরা বিয়ের জন্য অপেক্ষা করতে চায় না। কিছুদিন সময় কাটিয়ে সুযোগ বুঝে সটকে পড়াই থাকে তাদের উদ্দেশ্য। অনেক সময়ে এধরণের পুরুষরা বেশ বড় ধরনের বিপদের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

আচরণ পরিবর্তন
এক রাতেই ১০ বার ফোন দিয়ে পরের রাতেই উধাও! কিংবা একদিন এক ঘন্টা গল্প করে আবার কয়েকদিন কোনো খবর নেই! এই ধরনের পুরুষরা সাধারনত বিয়ের মত এতো বড় দায়িত্ব নিজের কাঁধে চাপাতে চায় না। সম্পর্কের একটু গা ছাড়া প্রকৃতির এই পুরুষরা বেশ আগ্রহ নিয়ে প্রেমের সম্পর্কে জড়ালেও সেই সম্পর্ককে বিয়ের পরিণতি দিতে চায় না সহজে।

লুকোচুরি
যে ধরনের প্রেমিকরা সম্পর্ক প্রকাশ করতে লুকোচুরি করে তাঁরা সাধারনত বিয়ে করতে চায় না। হঠাৎ চলার পথে বন্ধুর সাথে দেখা হয়ে গেলে সে আপনার হাত ছেড়ে দিয়ে দূরে সরে গেলে, কিংবা ফেসবুক থেকে আপনার সাথে ট্যাগ হয়ে যাওয়া ছবি কারণ ছাড়াই আনট্যাগ করে দিলে আপনি আগেই সাবধান হয়ে যান। সম্পর্কের ক্ষেত্রে সৎ থাকার ইচ্ছা থাকলে আপনার প্রেমিক আপনাকে তার পরিবার ও বন্ধুদের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করবে এবং আপনাদের সম্পর্ক নিয়ে লুকোচুরি করবে না। – See more at: http://fairnews24.com/details.php?id=11022#sthash.sz51bspu.dpuf

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ