আপডেট :»-
  বাংলা-

বেনাপোলে শীতের আমেজে ফুটপাতে পিঠা বিক্রির ধুম পড়েছে

মোঃ রাসেল ইসলাম,বেনাপোল প্রতিনিধি: যশোরের বেনাপোল বাজারের ফুটপাতে বিক্রি হচ্ছে হরেক রকমের পিঠা।সন্ধ্যা হলে ফুটপাতের প্রতিটি দোকানেই পড়ে পিঠা বিক্রির ধুম।শীতের টানা তিন মাস চলবে পিঠা বিক্রি। এসকল পিঠার সাথে থাকছে বিভিন্ন রকমের ভর্তা ও সরষে বাটা।সরেজমিনে বেনাপোল বাজার এলাকা ঘুরে দেখা গেছে ফুটপাতের বিভিন্ন জায়গায় বসেছে চিতই,ভাপা,তেলের পিঠা। ফুটপাতে বসে পিঠা যেমন খাচ্ছে তেমনই প্যাকেটে ভরে গরম পিঠা নিয়ে যাচ্ছে বাড়িতে। শীত মানেই পিঠা। আর এই পিঠার স্বাদ নিতে ফুটপাতে শত শত মানুষ। বর্তমানে বেনাপোল পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে এখন চিতই ও ভাপাসহ শীতকালীন পিঠা বিক্রির ধুম পড়েছে।

বেনাপোলের পিঠা বিক্রেতা সিদ্দিক বলেন, শীতের তিন মাস আমরা বিভিন্ন রকম পিঠা বিক্রি করি।প্রতি পিস পিঠা ৩টাকা।প্রতিদিন ১৫শ থেকে ১৮শ টাকার মত পিঠা বিক্রি হয়।শীত যত বেশি পড়বে পিঠাও বেশি বিক্রি হবে।ক্রেতাদের সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাকে।তবে অন্য পিঠার চেয়ে ভাপা ও চিতই পিঠার চাহিদা একটু বেশি। শুধু শীতে পিঠা বিক্রি করি। আর গরমে অন্যান্য খাবার বিক্রি করে সংসার চালায় আমি।

মোঃ নাজমুল ইসলাম নামে একজন পিঠা খেতে খেতে বলেন, শীতের সময় বাজারে সহজেই সকল পিঠা পাওয়া যায়। এই ঠান্ডায় গরম গরম পিঠার স্বাদ নিতে খুবই ভালো লাগছে। বন্ধুদের সঙ্গে একত্র হয়ে পিঠা খেতে ভালো লাগে। ব্যস্ততার কারণে বাড়িতে পিঠা খাওয়ার সময় না পাওয়ায় বাজারে এসে নানা ধরণের পিঠা কিনে স্বাদ নেওয়ার চেষ্টা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*

error: বাংলার বার্তা থেকে আপনাকে এই পৃষ্ঠাটির অনুলিপি করার অনুমতি দেওয়া হয়নি, ধন্যবাদ